অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবীরা পুনরায় পেনশন পাবেন

0
326

যেসব অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবী শতভাগ পেনশন উত্তোলন করেছেন তাদের পুনরায় পেনশনের আওতায় আনার বিষয়টি অনুমোদন করেছে সরকার। গতকাল সোমবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

২০১৭ সালের ১ জুলাই থেকে পেনশনের বিষয়টি কার্যকর হবে। এর আগে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এ সংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি মধ্য দিয়ে দেশে প্রথমবারের মতো এ ধরণের সুবিধা ভোগ করবেন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। প্রাথমিকভাবে এ সুবিধার আওতায় আসবেন প্রায় ২০ হাজার অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী। এজন্য পেনশন খাতে সরকারের অতিরিক্ত ব্যয় হবে ১৪৫ কোটি টাকা।

অবসরপ্রাপ্তদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনা করে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

অনুমোদিত প্রস্তাব অনুযায়ী, যেসব অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবী শতভাগ পেনশন উত্তোলন করেছেন, কেবল তারাই পুনরায় এই পেনশন সুবিধার আওতায় আসবেন। সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীর অবসরের বয়স হতে হবে কমপক্ষে ১৫ বছর। এক বছর আগ থেকে এ সুবিধা দেওয়ায় পেনশনের পাশাপাশি তাদের একটি করে ইনক্রিমেন্টও দেওয়া হবে।

জানা গেছে, ১৯৯৪ সাল থেকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ‘শতভাগ’ পেনশন বিক্রি বা সমর্পণ প্রথা চালু হয়। আর ২০১৭ সালের ৩০ জুন এ পদ্ধতি বন্ধ করা হয়। পাশাপাশি একই বছরের ১ জুলাই থেকে পেনশনের ৫০ শতাংশ সরকারের কাছে বাধ্যতামূলকভাবে সংরক্ষণের বিধান চালু করা হয়। দীর্ঘ ২৩ বছরে ১ লাখ ৭ হাজার ৬৫২ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী পেনশনের একশ’ ভাগ টাকা তুলে নিয়ে অবসরে গেছেন। বর্তমানে এসব চাকরিজীবী বিদ্যমান নিয়ম অনুযায়ী দুটি উৎসব বোনাস, বাংলা নববর্ষ ভাতা ও মাসিক চিকিৎসা ভাতা পাচ্ছেন।

শতভাগ পেনশন উত্তোলনের পর ১৫ বছর অতিক্রান্ত হয়েছে- এমন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা ১৯ হাজার ৫৩৮ জন। এই প্রস্তাবটি ২০১৭ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর করা হলে তাদের পেনশনবাবদ ব্যয় হবে প্রায় ১৩৯ কোটি টাকা। বিদ্যমান পেনশন পদ্ধতি অনুযায়ী, প্রতি বছর ৫ শতাংশ হারে পেনশন সুবিধাভোগীরা ইনক্রিমেন্ট পাবেন। ফলে ওই হিসাবে প্রস্তাবিত সুবিধার আওতায় ২০১৮ সালে ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট পাবেন সংশ্লিষ্টরা। এ জন্য সরকারের আরও অতিরিক্ত ব্যয় হবে ৬ কোটি টাকা। ফলে এ সুবিধা দিতে সরকারের মোট ব্যয় হবে ১৪৫ কোটি টাকা।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, শতভাগ পেনশন উত্তোলনকারীদের আবারো পেনশনের আওতায় আনার প্রস্তাবটি প্রথমে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত অনুমোদন করেন। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহজাহান স্বাক্ষরিত এই প্রজ্ঞাপনে চারটি বিধান রাখা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here