আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে বিএনপি-জামায়াত: আব্দুর রহমান

0
178

বিএনপি-জামায়াত পরাজিত পাকিস্তানী গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান। মঙ্গলবার ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ড. জাফরুল্লাহ সেনাবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানকে নিয়ে কিভাবে নির্লজ্জ, মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেছে। পরবর্তীতে তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বিবৃতিও দিয়েছিল। এখন বিএনপি-জামায়াত-ঐক্যফ্রন্ট সেনাবাহিনীর নামে বিভিন্ন ভুয়া ওয়েবসাইট ও ফেসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার লিপ্ত হয়েছে।

সেনাবাহিনীকে নিয়ে বিএনপি জামায়াতের এই ষড়যন্ত্র নতুন নয় উল্লেখ আব্দুর রহমান বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান মিথ্যা ক্যু এর নামে তথাকথিত সামরিক ট্রাইব্যুনালে প্রহসনের বিচারে শতশত মুক্তিযোদ্ধা, সেনা কর্মকর্তাকে হত্য করেছে। প্রতিদিন নাস্তার টেবিলে বসে অবৈধ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শত শত সেনা সদস্যের ফাঁসির রায় স্বাক্ষর করতেন।

ড. কামালকে ইয়াহিয়ার সাথে তুলনা করে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, পাকিস্তানপ্রেমী ড. কামাল হোসেন সংবাদ সম্মেলনে ৭১ এর গণহত্যাকারী ইয়াহিয়া খানের নাম উচ্চারণ করেছেন। বিবেকের আয়নার সামনে দাঁড়ালে ইয়াহিয়ার পাশে নিজেকে দেখতে পাবেন তিনি।

নির্বাচনে পরাজয়ের আশঙ্কায় বিএনপি-জামায়াত দেশে বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা করেছে দাবি করে আব্দুর রহমান বলেন, বিএনপি-জামায়াত-ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরা নিজেদের লোক দিয়ে আওয়ামী লীগ মহাজোট প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে হামলা, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। যা তাদের নেতাদের ফাঁস হওয়া ফোনালাপ থেকে প্রমাণিত হয়েছে।

আওয়ামী লীগে ২৩ জন যুদ্ধাপরাধী রয়েছে বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে আব্দুর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে নিশ্চয়ই মুজাহিদ-নিজামী কেউ খুঁজে পাবে না। কোন যুদ্ধাপরাধী যদি আওয়ামী লীগে থাকে, তাহলে তাদের ট্রাইব্যুনালের আশ্রয় নেওয়া উচিত ছিল। ট্রাইব্যুনালের আশ্রয় না নিয়ে এই ধরনের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত মিথ্যাচার করা জাতির জন্য লজ্জাস্কর এবং এটা আমাদের কাছে হাস্যকর ব্যাপার।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, আহমদ হোসেন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here