আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে নৌকার বিজয় শতভাগ নিশ্চিত : ওবায়দুল কাদের

0
181

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে নৌকার বিজয় শতভাগ নিশ্চিত। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেয়া এ দলকে পরাজিত করার মতো কোন দল দেশে নেই। আগামী জাতীয় নির্বাচনে আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকলে নৌকার বিজয় শতভাগ নিশ্চিত।’ ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার দুপুরে টঙ্গী সরকারী কলেজ মাঠে আগামী জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষ্যে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঐক্যকে মানুষ মারার হীন উদ্দেশে করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন বানচালের অশুভ উদ্দেশে সাত দফা দাবী দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এটা কেমন ঐক্য, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নামে কারা এক জোট হয়েছে ? এটা কেমন জোট, দেশের মানুষ কি এ জোটকে মেনে নিয়েছে?’
সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন,ওয়ান ইলেভেনের কুশিলবরা জাতীয় নির্বাচনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতেই পনেরই আগস্ট, একুশে আগস্টের খুনি ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সন্ত্রাসী, মানিলন্ডারিং ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক তারেক রহমানের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। ড. কামাল হোসেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব গ্রহন করে নষ্ট রাজনীতির ধারক ও বাহক বিএনপির সঙ্গে তিনি হাত মিলিয়েছে।
ওবায়দুল কাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন সম্পর্কে বলেন, তিনি ওয়ান ইলেভেনের ষড়যন্ত্রকারী ও মাইনা-টু-ফরমুলার সঙ্গে ছিলেন। আর আগামী নির্বাচনে ষড়যন্ত্র করে শেখ হাসিনাকে হটাতে হবে এ ষড়যন্ত্রই তার মূল উদ্দেশ্যে। তিনি বলেন, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। তাকে ঐক্য জোটের নেতা হিসেবে গ্রেফতার করা হয়নি। তাকে অশোভন বক্তব্য দেওয়ার জন্য তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে সারাদেশে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার বার্তা হল দল যাকে মনোনয়ন দেবেন তিনিই হবেন দলের একমাত্র প্রার্থী। দল থেকে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন তাদেরকে সঙ্গে সঙ্গে বহিষ্কার করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের টানা দশ বছরের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, গাজীপুরের নির্বাচনের আগে প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেয়া হবে। ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১৫ কোটি মানুষের হাতে মোবাইল, ১০ কোটি মানুষ ইন্টারন্যাট ব্যবহার করছে। দেশের এ বিস্ময়কর অবদান কার বলে জনগনের কাছে জানতে চান ওবায়দুল কাদের। মঞ্চের সামনে থেকে লাখো জনতা হাত তালি দিয়ে মন্ত্রীর প্রশ্নের উত্তরে বলেন শেখ হাসিনা।
তিনি বলেন,বছরের প্রথম দিন সারা দেশে সকল ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হচ্ছে। বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ নারীদের উপ বৃত্তির টাকা দেয়া হচ্ছে।
গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. আজমত উল্লা খানের সভাপতিতে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপুমনি এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এড. আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি, গাজীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এড. জাহাঙ্গীর আলম ও স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।
সকাল ৯টা থেকে শত শত দলীয় নেতাকর্মী বিভিন্ন রঙ্গের ব্যানার, ফেস্টুন বাধ্যযন্ত্র বাজিয়ে পথসভায় অংশগ্রহণ করেন। এক পর্যায়ে পথসভাটি জনসভায় রূপান্তরিত হয়। সভা শেষে মন্ত্রী ও অন্যান্য নেতাকর্মীরা প্রচারপত্র জনগণের মাঝে বিতরণ শুরু করেন।

(বাসস)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here