আখাউড়ায় শিশু অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি

0
68

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়ার পৌর এলাকার দেবগ্রামে ১৮ মাস বয়সের শিফাত মোল্লা নামে এক শিশুকে অপহরণের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় অপহরণকারিরা মোবাইল ফোনে মুক্তিপণের টাকা দাবি করেন বলে জানিয়েছেন শিফাতের পরিবার। অপহরণ হওয়া শিশুটি ঐ এলাকার ভাড়াটিয়া শিপন মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় পরে বিষয়টি পুলিশ ও স্থানীয়দেরকে অবহিত করা হয় তার পরিবার। বিষয়টি কাউকে জানালে শিফাতকে মেরে ফেলারও হুমকি দেন অপহরণকারিরা।

শিফাতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, দেবগ্রাম এলাকায় ভাড়াটিয়া বাসায় থাকে শিফাতের পরিবার। বাবা শিপন মোল্লা রাজমিস্ত্রী, মা লাকী বেগম গৃহিনী। তাদের সঙ্গে এক বাড়িতে ভাড়া থাকে মোঃ ফারুক ও তার স্ত্রী। রোববার দুপুরে শিফাতকে কৌশলে নিয়ে যায় তারা। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে শিফাত সবার ছোট। প্রতিবেশী ফারুকের স্ত্রী রূপা বেগম দুপুরে বেশ কিছু সময় শিফাতকে কোলে নিয়ে রাখে।

এরই মধ্যে সুযোগ বুঝে ফারুক ও তার স্ত্রী শিশুটিকে নিয়ে সটকে পড়ে। কিছুক্ষণ পর শিশু শিফাতকে না পেয়ে সন্দেহ হয় পরিবারের। ঘরে গিয়ে দেখে দু’টি মোবাইল ফোনটিও নেই। এদিকে শিফাতের মা ছেলের কথা মনে করে বার বার কেঁদে উঠছিলেন। নিয়ে যাওয়ার কয়েকঘন্টা পর ফারুক মোবাইল ফোনে মুক্তিপণের টাকা দাবি করেন জানান তারা।

আখাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ মাসুদ আলম আহমেদ বলেন, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য আমাদের সর্ব্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত আছে। সে সাথে অপহরনের ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here