আত্মতুষ্টিতে থাকা যাবে না, দলীয় নেতাকর্মীদের প্রধানমন্ত্রী

0
154

ত্মতুষ্টিতে থাকা যাবে না বলে দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যুক্তরাষ্ট্রের ৭ দিনের সফর শেষে সোমবার সকালে গণভবনে সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে এ নির্দেশনা প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, যত অর্জন তা দেশের জনগণের দান। জনগণ সুযোগ দিয়েছে বলেই এতো সাফল্য। ৭৫-এ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর পিছিয়ে যাওয়া বাংলাদেশের সম্মান আজ ফিরে পেয়েছে।

ভোটারদের অধিকার প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেবল আওয়ামী লীগই ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে। শত বাধা, ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ক্ষমতায় আসতে হয়েছে বলেই আজ আত্মমর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত দেশ। ষড়যন্ত্র এখনও শেষ হয়নি।

এ সফরে বিশ্বসভায় যত সম্মান পেয়েছি, সে সম্মান দেশের জনগণের জন্য উৎসর্গ করলাম। যুক্তরাষ্ট্র সরকার আন্তরিক, এ সফর ফলপ্রসূ হয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে সকাল ৯টায় ঢাকায় ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে ঢাকার হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি।

গতকাল লন্ডনের যাত্রাবিরতি শেষে তিনি বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে স্থানীয় সময় ৬টা ২০ মিনিটে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে লন্ডন ত্যাগ করেন। তিনি লন্ডনে প্রায় ১০ ঘণ্টা যাত্রাবিরতি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী গত ২৭ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদরদপ্তরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে ভাষণ দেন এবং ওই দিন জাতিসংঘ মহাসচিব এন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে বৈঠক করেন। ইউএনজিএ-এর ফাঁকে শেখ হাসিনা ডাচ রানী ম্যাক্সিমা এবং এন্তোনিয়ার প্রেসিডেন্ট কার্সটি কালজুলাইদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পোম্পেও তার সঙ্গে দেখা করেন। প্রধানমন্ত্রী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড জে ট্রাম্পের দেয়া অভ্যর্থনায় যোগ দেন।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদানের ফাঁকে তিনি রোহিঙ্গা সংকট, সাইবার নিরাপত্তা, শান্তিরক্ষা, নারী ক্ষমতায়ন, নারী শিক্ষা এবং বিশ্বের মাদক সমস্যা সংক্রান্ত সমস্যাসহ বেশ ক’টি উচ্চ পর্যায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এই সফরে তিনি দু’টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার গ্রহণ করেন। এগুলো হচ্ছে- বৈশ্বিক সংবাদ সংস্থা ইন্টার প্রেস সার্ভিসের (আইপিএস) ‘ইন্টারন্যাশনাল এচিভমেন্ট এওয়ার্ড’ এবং নিউ ইয়র্ক, জুরিখ এবং হংকং ভিত্তিক তিনটি অলাভজনক ফাউন্ডেশনের নেটওয়ার্ক গ্লোবাল হোপ কোয়ালিশনের ‘স্পেশাল ডিস্টিংশন অ্যাওয়ার্ড ফর আউটস্ট্যান্ডিং লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here