আদর্শ পোষ্য বিচিত্র মুরগি ‘সিল্কি’!

0
190

রম পালকে মোড়া একদম নরম তুলতুলে। ধবধবে সাদা কিংবা কুচকুচে কালো। হাত বোলালে মিলবে রেশমের অনুভূতি। বিচিত্র এই প্রাণী আসলে এক বিশেষ প্রকার মুরগি। রেশমের মতো পালকের কারণে এর নামও ‘সিল্কি’ কিংবা ‘সিল্ক চিকেন’।

এতই নরম এই মুরগির পালক যে, তার সাহায্যে এরা উড়তে পারে না। পানিতে ভিজেও যায় এই রেশমি পালক। দেখতে যেমন আলাদা, সিল্কির স্বভাবও সাধারণ মুরগির থেকে ভিন্ন ধরণের। অন্যান্য মুরগির মতো এরা রগচটা তো নয়ই, বরং অতি শান্ত।

মানুষের সঙ্গে তাদের সম্পর্কও খুব বন্ধুত্বপূর্ণ। পোষ্য হিসেবে ঘরে রাখার জন্য এরা আদর্শ। এদের আরেক বৈশিষ্ট্য হল মাতৃত্বের গণ। সন্তান প্রতিপালনে এরা বিশেষ ভাবে দক্ষ। তবে এই প্রকার মুরগি ডিম দেয় কম। তবু সিল্কি যাঁরা পোষেন, তা সিল্কির কাছ থেকে পাওয়া ভালবাসার লোভেই।

আমাদের অচেনা হলেও এই মুরগির ইতিহাস অনেক দিনের। বিজ্ঞানীরা জানান, খ্রিস্টের জন্মের ২০০ বছরেরও আগে সম্ভবত চীনে এই মুরগির আবির্ভাব। তারপর বাকি দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়া। সিল্কির প্রথম উল্লেখ মেলে মার্কোপোলোর বৃত্তান্তে। কাজেই মানুষের সঙ্গে এই মুরগির বন্ধুত্ব কম দিনের নয়। আজও বিশ্বের নানা দেশে পোষ্য হিসেবে সেই দোস্তি বজায় রেখেছে সিল্কি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here