আদালতের বাধ্যবাধকতার কারণে বসেছি সঠিক নয়

0
209

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, ডাকসু নির্বাচন হচ্ছে না বিগত ২৮ বছর ধরে। আর আমরা দায়িত্ব পেয়েছি মাত্র এক বছর হলো। এক বছরে আমরা আমাদের সদিচ্ছা থেকে অনেক কাজ করেছি। আদালতের বাধ্যবাধকতার কারণে বসেছি, এটি সঠিক নয়। তিনি বলেন, আমরা দেরি করতে না চাইলেও সংগঠনগুলোর বৈধ কমিটি না থাকায় কমিটির জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে। না হলে আমরা কার সাথে বসতাম?

তিনি ঢাবির সামাজিক বিজ্ঞান ভবনের মুজাফ্ফর আহমদ চৌধুরী মিলনায়তনে আয়োজিত জাতীয় মানবাধিকার সোসাইটির আলোচনা সভা ও মেধাবী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এই প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আমরা লিভ টু আপিল করেছি, বৈধভাবে আদালতের মাধ্যমে সময় নিতে, যেন ডাকসু নির্বাচনটা সঠিকভাবে করতে পারি, যেটা আমাদের আইনগত অধিকার। কেননা, নির্বাচনের একটি বড় কাজ হলো, বৈধ ভোটার তালিকা তৈরি। সেজন্য আমাকে তো সময় দিতে হবে।

এই শিক্ষাবিদ জানান, আমরা নিজেদের দায়বদ্ধতা থেকে কয়েক দফায় বসেছি। কিছু ছোট ছোট কাজও করেছি। দেখতে দেখতে এক বছর চলে গিয়েছে। অথচ অমাদের উপর মিথ্যাচার চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে যে, আমরা নাকি ডাকসু নির্বাচন না করার জন্য লিভ টু আপিল করেছি। এসব মিথ্যাচারের তিনি নিন্দা জানান।

তিনি বলেন, আমরা ডাকসু নির্বাচন নিয়ে খুবই আন্তরিক। তবে সীমাবদ্ধতাও কম নয়। তিনি নির্বাচনের ব্যাপারে সকলের সহায়তা কামনা করেন। ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিষ্ঠিত হোক মানুষের অধিকার’ শীর্ষক ওই আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম তামিজী। উদ্বোধক ছিলেন বিচারপতি আলী আসগর খান। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব ব্যারিস্টার আফতাব উদ্দিন আহমদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক আবদুল জলিল চৌধুরী, মোশাররফ হোসেন খান চৌধুরী, প্রিন্সিপাল মোহাম্মদ আলী চৌধুরী মানিক, কবি প্রদীপ মিত্র, আবদুল হান্নান প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here