মিয়ানমার সংক্রান্ত জাতিসংঘ তথ্য অনুসন্ধান মিশনের রিপোর্টকে স্বাগত জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়া

0
197

মিয়ানমার সংক্রান্ত জাতিসংঘের তথ্য অনুসন্ধান মিশন সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করায় স্বাগত জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। অস্ট্রেলীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একথা জানায়।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরিস অ্যান পেনি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘তথ্য অনুসন্ধান মিশনের প্রতিবেদন দেখে অস্ট্রেলিয়া গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। অস্ট্রেলিয়া ধারাবাহিকভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহবান জানিয়ে আসছে। আমরা ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য বিচারের আহবান পুনর্ব্যক্ত করছি। দোষীদের অবশ্যই জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।’
বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘এর অবসান ঘটাতে হিউম্যান রাইট্স কাউন্সিল এবং জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে আমাদের অবস্থানসহ আর্ন্তজাতিকভাবে আমরা তৎপরতা অব্যাহত রাখবো।’
ঢাকার অস্ট্রেলিয়া হাই কমিশন থেকে জারিকৃত এই বিবৃতিতে বলা হয়, ‘তথ্য অনুসন্ধান মিশন মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে যে পুঙ্খানুপুঙ্খ, বিশ্বাসযোগ্য ও স্বাধীন অনুসন্ধান পরিচালনা করছে অস্ট্রেলিয়া তার দৃঢ় সমর্থক।
তথ্য অনুসন্ধান মিশনের প্রতিবেদনে রাখাইন রাজ্যে যুদ্ধাপরাধ, মানবতা বিরোধী অপরাধ ও গণহত্যা সংঘঠিত হয়েছে উল্লেখ করে এই নৃশংসতার জবাবদিহিতার পদক্ষেপ গ্রহনের সুপারিশ করা হয়েছে।
তথ্য অনুসন্ধান মিশন সেপ্টেম্বরে তাদের সম্পূর্ণ প্রতিবেদন প্রদানের পর আবারো মতামত জানাবে অস্ট্রেলিয়া।
রোহিঙ্গা সংকট এই অঞ্চলের জন্য সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয়। ৯ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী বাস্তুচূত হয়ে বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে। এছাড়া ৫ লাখ ৩০ হাজার এখনো মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রয়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here