ইসলামের দৃষ্টিতে ঘরের দেয়ালে চিত্রশিল্প

0
258

ঘরের নান্দনিক শোভা বাড়ায় চিত্রশিল্প। সৃজনশীল কর্ম, পশু-পাখি ও মানুষের ছবি দিয়ে সাজানো হয় নিবাস। বেডরুমে মাথার ওপরে কেউ কেউ টাঙিয়ে রাখেন প্রিয় মানুষদের ছবি। নানা পশুপাখির মূর্তিও শোভা পায় অনেকের সাজঘরে। কিন্তু ইসলাম এ বিষয়টি কোন দৃষ্টিতে দেখছে ভেবেছেন কি? মূর্তি কিংবা অপ্রয়োজনে মানুষের ছবি আঁকা কি ইসলাম সমর্থন করে?

একবার আয়েশা (রা.) একটি ছোট বালিশ ক্রয় করেছিলেন। তাতে ছবি আঁকা ছিল। ঘরে প্রবেশের সময় এতে রসুল (সা.)-এর দৃষ্টি পড়লে তিনি আর ঘরে প্রবেশ করলেন না। আয়েশা (রা.) তার মুখমণ্ডল দেখেই তা বুঝতে পারলেন। তিনি বললেন, আমি আল্লাহ ও তার রসুলের নিকট তওবা করছি। আমি কি গুনাহ করেছি? রসুল (সা.) জিজ্ঞেস করলেন : এই ছোট বালিশটি কোথায় পেলে? তিনি বললেন : আমি এটা এ জন্য ক্রয় করেছি, যাতে আপনি এতে হেলান দিয়ে বিশ্রাম করতে পারেন।

তখন রসুল (সা.) বললেন, যারা এসব ছবি অঙ্কন করেছে কিয়ামতের মাঠে তাদের আজাব দেওয়া হবে। তাদের বলা হবে, তোমরা যাদের সৃষ্টি করেছিলে তাদের জীবিত কর। অতঃপর তিনি বললেন, যে ঘরে ছবি থাকে সে ঘরে রহমতের ফেরেশতা প্রবেশ করে না। (বুখারি ও মুসলিম)।

তিনি আরো বলেছেন, কিয়ামতের মাঠে ওই সব লোক (যারা ছবি আঁকে তারা আল্লাহর সৃষ্টির মতোই কিছু করতে উদ্যত হয়) সবচেয়ে বেশি আজাব ভোগ করবে, যারা আল্লাহর সৃষ্টির মতো সৃষ্টি করে। (বুখারি ও মুসলিম)।

যেসব ছবি ঘরে রাখা জায়েজ, তার মধ্যে রয়েছে— গাছপালা, চন্দ্র-তারকা, পাহাড়-পর্বত, পাথর, সাগর, নদ-নদী, সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য, কাবাঘর, মদিনা শরীফ, বাইতুল মোকাদ্দাস, বা যেকোনো মসজিদের মতো পবিত্র স্থানের ছবি।

এ ব্যাপারে ইবনে আব্বাস (রা.) বলেন, যদি তোমাকে ছবি বা মূর্তি বানাতেই হয়, তবে কোনো বৃক্ষ বা এমন জিনিসের ছবি আঁক যাদের জীবন নেই।

পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স বা এ জাতীয় কাজে ছবি উঠানো (অতি প্রয়োজনের খাতিরে) জায়েজ। হত্যাকারী বা অপরাধীদের ছবি তোলা জায়েজ, যাতে করে তাদের ধরে শাস্তির ব্যবস্থা করা যায়। এ রকম যদি ছোট মেয়েরা ঘরে বানানো কাপড় দিয়ে পুতুল খেলে তা জায়েজ, তবে পোশাক পরিহিত ও পাক পরিষ্কার হতে হবে। এর দ্বারা কীভাবে শিশুকে পালন করতে হয়, তা বাচ্চারা শিক্ষাগ্রহণ করতে পারে।

ফলে বড় হয়ে মা হলে তা তাদের উপকারে আসবে। আয়েশা (রা.) বলেন, আমি রসুলের (সা.)-এর সঙ্গে আমার পুতুল মেয়ে নিয়ে খেলা করতাম। (বুখারি)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here