এলপিজি ব্যবহারে মন্ত্রণালের সতর্কতা

0
181

বাসা বাড়িতে এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহারের সময় অসতর্কতা বা সিলিন্ডারের ব্যবহার পদ্ধতি সঠিক না হওয়ার কারণে গ্যাস নি:সরণ হয়ে বিস্ফোরণ এবং অগ্নিকাণ্ড ঘটছে বলে মনে করছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহারে সচেতনতা তৈরিতে কয়েকটি পদ্ধতি ব্যবহারের সুপারিশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় বাসা বাড়িতে ব্যবহৃত সিলিন্ডার আগুনে বা অন্যভাবে গরম হলে তরল এলপিজি দ্রুত গ্যাসে রূপান্তরিত হয়ে অস্বাভাবিক চাপ বৃদ্ধির ফলে সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হতে পারে। তাই সিলিন্ডার কোনো ভাবেই চুলার বা আগুনে পাশে রাখা যাবে না এতে করে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। অতিরিক্ত গ্যাস বের করার জন্য এলপিজি সিলিন্ডারে তাপ না দেবার কথাও বলা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রান্না শেষে চুলা ও এলপিজি সিলিন্ডারের রেগুলেটরের সুইচ অবশ্যই বন্ধ রাখতে হবে। গ্যসের গন্ধ পেলে ম্যাচের কাঠি না জ্বালিয়ে দরজা-জানালা খুলে দেওয়ার কথা বলা হয়। শুধু তাই নয় রান্না শুরু করার আধাঘন্টা আগে রান্না ঘরের দরজা জানালা খুলে দেওয়ার কথা বলা হয়। সতর্কতা বিজ্ঞপ্তির শেষ ধাপে বলা হয় এলপিজি সিলিন্ডার খাড়াভাবে রাখতে হবে কখনোই উপুড় বা কাত করে রাখা যাবে না। চুলাকে সিলিন্ডার থেকে নিচুতে না রাখার কথাও বলা হয়। কমপক্ষে ৬ ইঞ্চি উপরে রাখার কথা বলা হয়। রান্না ঘরের উপরে ও নীচে ভেন্টিলেটর রাখলে গ্যাস সহজেই বের হয়ে যেতে পারে তাই ভেন্টিলেটর রাখার পরামর্শও দেওয়া হয়। সিলিন্ডারের ভাল্বের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ রেগুলেটর ব্যবহারের কথা বলা হয়।

এছাড়া যে কোন পরামর্শের জন্য সেগুনবাগিচার ১২তলা কমিশনার বিল্ডিং ক্যাম্পাসে বিস্ফোরক পরিদপ্তরের চীফ ইন্সপেক্টর বা ইন্সপেক্টরের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here