ঐক্যফ্রন্ট থেকে বিজয়ীর শপথ নিয়ে অস্বস্তিতে গণফোরাম, দল গঠনে আরো সতর্ক থাকার কথা বলছে বিএনপি

0
151

ঐক্যফ্রন্ট থেকে বিজয়ী বিজয়ী সংসদ সদস্যের শপথ নিয়ে অস্বস্তিতে গণফোরাম। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থার কথা জানিয়েছে দলটি। তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে দল গঠনে আরো সতর্ক থাকার কথা বলছে বিএনপি। আর দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করলে তাদের কি পরিণতি হবে তা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন ব্যাখ্যা আছে আইনজ্ঞদের। যমুনা টিভি।

ভিন্ন ভিন্ন আদর্শের দল একটি প্লাটফর্মে আসায় অনৈক্যের সুর ছিলো শুরু থেকেই। সবশেষ পরিস্থিতি আরো জটিল হয় গণফোরামের সুলতান মনসুর ও মোকাব্বের খান এমপি হিসেবে শপথ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিলে। দলীয় স্বার্থের চেয়ে ব্যক্তি স্বার্থকে যারা প্রাধান্য দিচ্ছেন তাদের বিষয়েই কতটুকু পদক্ষেপ নিবে ড. কামাল হোসেনের দল।

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু বলেছেন, আমরা কখনই শপথ নেয়ার পক্ষে না। যারা করছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। গণফোরামের শপথ নিয়ে ভীষণ রকমের অস্বস্তিতে আছে বিএনপিতেও। এমনিতেই নির্বাচনের পর ঐক্যফ্রন্টের দল গঠনে কার্যকারিতা আর উপযোগিতা নিয়ে প্রশ্ন আছে অনেক নেতা-কর্মীদের মাঝে।

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, একজন নবনির্বাচিত এমপির মুখে জয় বাংলা, পরনে মুজিব কোর্ট কিন্তু মার্কা তার ধানের শীষ। বিএনপিকে চিন্তা করতে হবে নিজেদের ধানের শীষ প্রতীক অপাত্রে দেয়া যায় কিনা।

মনসুর এর শপথ নেয়ার আগ মুহূর্তেও নানা বিশ্লেষণ চলছে আইনী বৈধতা নিয়ে। সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক মনে করেন তাদের শপথ সংবিধান মোতাবেক ৭০ অনুচ্ছেদের মৌলিক চেতনা বিরোধী। তিনি বলেন, যে ব্যক্তি একটি দলের হয়ে নির্বাচিত হবে, সেই ব্যক্তি যেন ঐ দলকে না ছেড়ে যায় এবং দলে বিরুদ্ধে কাজ না করে। সেটাই হলো ৭০ অনুচ্ছেদের মূল ধারণা। যারা শপথ নিচ্ছেন তা ৭০ অনুচ্ছেদের ধারণার পরিপন্থি

তবে ড. শাহদীন মালিকের সাথে কিছুটা দ্বিমত পোষণ করেন সাবেক আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ। তিনি মনে করেন, নির্বাচিতের শপথের পথ গণতন্ত্রের পথ কিছুটা সুগম হবে। তিনি বলেন, যারা নির্বাচিত প্রতিনিধি তাদের দায়িত্ব পালনে কোনো অসুবিধা হবে না। যে দল থেকে নির্বাচিত হয়েছে, সে দল তাদেরকে বহিষ্কার করবে সংবিধানে সেরকম বিধান নেই তাকে অপসারণ করার। তাদের সংসদে সদস্য পথ থেকেই যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here