কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হবেন শাহরুখ

0
39

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে। তবে মহামারি কোপ পড়েছে চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে।শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) রাজ্যের প্রশাসনিক ভবন নবান্ন থেকে ভার্চ্যুয়ালি এই অনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২৬তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ভার্চ্যুয়ালি হলেও উপস্থিত থাকবেন বলিউড ‘বাদশা’ শাহরুখ খান। একথা টুইট করে নিজেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নিজের সেই টুইটে শাহরুখকে ট্যাগও করেছেন তিনি।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) টুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, সবাই আমরা এই মহামারি কাটিয়ে উঠবো। কিন্তু শো চালিয়ে যেতে হবে। আমরা এবার ছোট করে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করব। সেটা হবে ভার্চ্যুয়ালি। আমি গর্বিত যে ৮ জানুয়ারি বিকেল ৪টাতে আমার ভাই শাহরুখ এই অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যোগ দেবেন। কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে চোখ রাখুন। ’ 

তবে প্রত্যেকবারের মতো এবারের উদ্বোধনে অমিতাভ বচ্চন থাকবেন কি-না তা অবশ্য স্পষ্ট করেননি মুখ্যমন্ত্রী।

ইতোমধ্যে প্রতিযোগিতার জন্য জমা পড়া সব সিনেমা দেখা প্রায় শেষ বিচারকদের। ভারতীয় ভাষার সিনেমার বিভাগে বিচারকমণ্ডলী রয়েছেন শেখর দাস, প্রভাত রায়, পাপিয়া অধিকারী, যুধাজিত সরকার, সত্রাজিৎ সেন, সুদেষ্ণা রায়, প্রেমেন্দ্র বিকাশ প্রমুখ। এবারের উৎসবে সেরা চলচ্চিত্রকে রয়্যাল বেঙ্গল গোল্ডেন ট্রফির পাশাপাশি ৫১ লক্ষ রুপি পুরস্কার দেওয়া হবে।

এবার চলচ্চিত্র উৎসবের থিম কান্ট্রি ইতালি। চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী সিনেমা থাকছে ‘অপুর সংসার’। ২০২০ সালে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ঋষি কাপুর, ইরফান খান, সন্তু মুখোপাধ্যায়, তাপস পালসহ বহু কিংবদন্তি মারা গিয়েছেন। এমনকি বছরের শেষ দিকে পরিচালক বাসু চট্টোপাধ্যায়কেও হারাতে হয়েছে। এর পাশাপাশি গতবছর নৃত্যশিল্পী অমলা শঙ্করেও মৃত্যু হয়েছে। প্রয়াত এই কিংবদন্তিদের এবারের চলচ্চিত্র উৎসবে সম্মান জানানো হবে।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের ৯টি সিনেমা ও অন্যান্য প্রয়াত অভিনেতাদের একটি করে সিনেমা দেখানো হবে এ বছর। এছাড়াও হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, রবিশঙ্কর, ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে তৈরি তথ্যচিত্র দেখানো হবে। বিদেশীর সিনেমার তালিকা এখনও জানা যায়নি।  

করোনার কারণে এবার চলচ্চিত্র উৎসবের হলের সংখ্যাও কমানো হয়েছে। প্রেক্ষাগৃহে সিনেমা দেখার জন্য যাতে ভিড় না হয়, তাই রবীন্দ্রসদন এলাকায় সকলের জন্য জায়েন্ট স্ক্রিন বসানো হচ্ছে। জানা যাচ্ছে, শিশিরমঞ্চ, নন্দন, রবীন্দ্রসদনসহ মাত্র ৬টি প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হবে চলচ্চিত্র উৎসবের সিনেমাগুলি।  

মাত্র ৫০ শতাংশ দর্শক থাকতে পারবে প্রেক্ষাগৃহের ভেতরে। কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব ৮ থেকে শুরু ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। সূত্র: বাংলানিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here