কারওয়ান বাজারের চার মার্কেটে ফাটল

0
172

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে সিটি করপোরেশনের চারটি মার্কেটের বিভিন্ন স্থানে ফাটল দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে চিন্তিত দোকান মালিকরা। তবে এসব মার্কেটের ব্যবসায়ীদের স্থানান্তর করা হলে ভবন সংস্কারের প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের দাবি অনুযায়ী প্রকৌশলী দিয়ে আমরা মার্কেটটি পরীক্ষা করিয়েছি। প্রকৌশলীরা ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করলে আমরা ব্যবসায়ীদের সরানোর ব্যবস্থা নিব।

কারওয়ান বাজারের কিচেন মার্কেটের ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে ১৯৮৪ সালে। কোনও ধরনের সংস্কার কাজ না হওয়ায় এরই মধ্যে ভবনের বেশ কিছু অংশের আস্তরণ উঠে গেছে। দেখা দিয়েছে ফাটল। ১ নম্বর মার্কেটের হার্ডওয়ার ব্যবসায়ীরা বলেন, মার্কেটের টেম্পার নষ্ট হয়ে গেছে। ভবন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গেছে। যে কোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

১নং মার্কেট সবচেয়ে পুরনো হওয়ায় আস্তরণ উঠে যাওয়ার পাশাপাশি রয়েছে ফাটলও। এই ভবনে বিভিন্ন যন্ত্রাংশের দোকান থাকায় ভবন ধসের ঝুঁকিতে রয়েছে ব্যবসায়ীরা। তবে এরই মধ্যে ব্যবসায়ীরা নিজ উদ্যোগেই বেশ কিছু সংস্কার কাজ করেছেন বলে জানান তারা।
১ নং মার্কেটের সেলাই মেশিনের পার্টসের দোকানের মালিক বাদশা মিয়া বলেন, ব্যবসায়ীরা নিজ উদ্যাগে কিছু সংস্কার কাজ করেছে। এছাড়া বুয়েট থেকে প্রকৌশলী ভবন পরীক্ষা করে গেছে। ভবন খুব বেশি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় নেই।

এদিকে, দুই নম্বর ভবনের অবস্থা আরও নাজুক, পিলারেও দেখা দিয়েছে ফাটল। এছাড়া বারান্দাসহ ভবনের বিভিন্ন স্থানে ফাটল থাকায় ঝুঁকিতে রয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তারা জলছাদের বদলে হালকা আস্তরণ দিয়ে গেছে। যে ঠিকাদার কোম্পানি ভবন সংস্কারের কাজ পেয়েছিল, তদারকির অভাবের কারণে কাজ ঠিক মতো করেনি ঠিকাদার কোম্পানি। আসলে ঠিকাদার কোম্পানির কাজ দেখাশোনা করার কেউ ছিল না।

কাওরান বাজার ২ নম্বর মার্কেটের ব্যবসায়ী সমিতির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান ভূঁইয়া বলেন, যে ঠিকাদার কোম্পানি ভবন সংস্কারের কাজ পেয়েছিল, আসলে ঠিকাদার কোম্পানির কাজ দেখাশোনা করার কেউ ছিল না। তদারকির অভাবের কারণে কাজ ঠিক মতো করেনি ঠিকাদার কোম্পানি। ব্যবসায়ী নেতাদের অভিযোগ, শুধু রং ও চুন দেয়া ছাড়া সিটি করপোরেশন এসব মার্কেটে সংস্কার কাজ করছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here