ক্রিকেটে রিভিউ সিস্টেমের পরিবর্তন চান শচীন; সমর্থন জানালেন লারা

0
56

 ক্রিকেটের এখনকার নিয়ম অনুযায়ী, এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত রিভিউয়ে বদলে দিতে হলে বলের ৫০ ভাগের বেশি অংশ লাগতে হয় স্টাম্পে। বলের অর্ধেকের বেশি অংশ স্টাম্পে না লাগলে টিকে যায় মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত। কিন্তু এমন নিয়মের পরিবর্তন চেয়েছেন ‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ শচীন টেন্ডুলকার। তার চাওয়া, এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে রিভিউয়ে বল স্টাম্পে সামান্যতম লাগলেও যেন আউট দেওয়া হয় ব্যাটসম্যানকে। এক্ষেত্রে টেনিস খেলার উদাহরণ টেনেছেন শচীন।

লারার সঙ্গে টুইটার আড্ডায় শনিবার টেন্ডুলকার এসব কথা বলেন। শচীন ভাষ্যে, “ রিভিউয়ের আইসিসির যে নিয়ম বেশ কিছুদিন ধরে আসছে, সেটির সঙ্গে আমি একমত নই। কেউ যখন রিভিউ নেন, তার মানে মাঠের সিদ্ধান্ত নিয়ে তিনি অখুশী। এটিই রিভিউ নেওয়ার একমাত্র কারণ। তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে যখন পাঠানো হয়, তখন প্রযুক্তির ওপরই সবকিছু ছেড়ে দেওয়া উচিত। অনেকটা টেনিসের মতো, হয় বাইরে নয় ভেতরে। মাঝামাঝি বলে কিছু নেই।”

“ বলের কত শতাংশ স্টাম্পে লাগছে, তা ব্যাপার নয়। রিভিউয়ে যদি দেখা যায়, বল স্টাম্পে লাগছে, তাহলে আউট দেওয়া উচিত, মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত যেটাই হোক। এটিই তো প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্দেশ্য। ”

প্রযুক্তি অনেক সময়ই শতভাগ নিখুঁত নয় বলে সমালোচনা আছে। টেন্ডুলকারের কথায় উঠে এসেছে সেই প্রসঙ্গও। “ আমি জানি, অনেকেই বলেছেন, প্রযুক্তি মাঝেমধ্যে শতভাগ ঠিক নয়। তবে মানুষও তো সবসময় শতভাগ সঠিক নয়! প্রযুক্তি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিলে এটির ওপরই নির্ভর করা উচিত।”

টেন্ডুলকারের কথার সুরেই লারা বললেন, রিভিউ পদ্ধতি আরও পরিশীলিত করা উচিত।

“তোমার কথায় যুক্তি আছে। কারণ একই ডেলিভারির ক্ষেত্রে, আম্পায়ার আউট দিলে রিভিউয়ের সিদ্ধান্ত একরকম হয়, আউট না দিলে আরেকরকম। আমার মনে হয়, এটি (রিভিউ) যখন ক্রিকেটের অংশই হয়ে উঠেছে, আমি এটি রেখে দেওয়ার পক্ষে। তবে এটিকে আরও নিখুঁত করে তোলা উচিত বা যতটা সম্ভব, নিখুঁতের কাছাকাছি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here