খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নতুন তথ্য দিতে পারেনি বিএসএমএমইউ

0
153

খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গতকালের অবস্থান থেকে নতুন কোনো তথ্য দিতে পারেনি শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের পরিচালক আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, মেডিকেল বোর্ডের সভাপতি আব্দুল জলিল চৌধুরী গতকালের মতো আজও চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়াকে দেখেছেন। মেডিকেল বোর্ডের ৫ সদস্য সাড়ে১১টা থেকে উনার সমস্ত কাগজপত্র দেখেছেন।

দুপুরে মেডিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিচালক বলেন, বোর্ড সিদান্ত নিয়েছেন আপাতত তার যে চিকিৎসা চলছে তাই চলবে পরবর্তিতে যদি নতুন কোন চিকিৎসার প্রয়োজন হয় তার ব্যবস্থাও করা হবে। খালেদা জিয়ার শরীরের পূর্ণাঙ্গ পরিক্ষা নিরিক্ষা যা প্রয়োজন তা করা হবে।

তিনি বলেন বোর্ড হয়তো আবার আগামীকাল বসবে। বোর্ড আজকে তাকে দেখছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন তার কাগজপত্র শুধু দেখা হয়েছে। বোর্ড পূনর্গঠন হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, বোর্ড পূনর্গঠন হয়নি, একজন সদস্য সজল ব্যানার্জি জরুরি প্রয়োজনে বাহিরে থাকায় তার জায়গায় সহযোগী অধ্যাপিকা তাসপিয়া পারভিন থাকবেন।

হারুন বলেন, আইনজীবীরা এখানে আসছিলেন তারা আদালতের রায় অনুসারে কাজ হচ্ছে কি না জানতে চেয়েছেন।

ডাক্তাররা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখনও চিকিৎসকদল তাকে দেখেননি। তার আগের চিকিৎসার ব্যাবস্থা পত্রগুলো দেখেছেন। সেগুলো পর্যালোচনা করেই আগের চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন।

খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে পছন্দের কোনো ডাক্তারের কথা বলা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে পরিচালক বলেন, বিএনপি চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়া তার পছন্দের কোনো চিকিৎসক এর কথা এখণও আমাদের বলেন নি। যদি খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে কোনো ডাক্তার বা পিজিও থেরাফিস্ট এর অবেদন করা হয় তাহলে আদালতের আদেশ অনুসারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মেডিক্যাল বোর্ডের ৪ জন সদস্য স্বাচিপের আজীবন সদস্য বিএনপির এ অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, আদালত তার রায়ে বলেছেন যারা ড্যাব বা স্বাচিপ এর বর্তমান কার্যনির্বাহী সদস্য তারা মেডিক্যাল বোর্ডে থাকতে পারবেন না। এছাড়া বাকী যে কোনো ডাক্তার খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত বোর্ডের সদস্য হতে পারবে। আমরা সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিয়েছি।

খালেদা জিয়া কেমন আছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, বেগম জিয়া কাল আমাদের এখানে এসেছেন। তিনি কাল যেমন ছিলেন আজও তেমন আছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here