গৃহবধূকে বর্বর নির্যাতন

0
251

গণমাধ্যম ডেস্কঃ সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় খুঁটিতে বেঁধে আকলিমা বেগম (২৬) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন করেছে পতিপক্ষের লোকজন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ওই গৃহবধূ উপজেলার ধনপুর ইউপির পশ্চিম ছাতারকোনা গ্রামের সেলিম মিয়ার স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (৭আগস্ট) সকাল সাড়ে নয়টার সময় উপজেলার ছাতার কোন গ্রামে পুলিশ সদস্যের পরিবার ও ওই গৃহবধূর পরিবারের মামলা মোকদ্দমার বিরোধ কে কেন্দ্র করে পুলিশ সদস্যের চাচা আব্দুল কদ্দুছের বাড়ির উঠানে পুলিশ সদস্যের পিতা আব্দুল মোতালেব (৬০) ও আইন উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নানসহ অন্যান্যরা ওই গৃহবধূর বসত ঘর থেকে তাকে ধরে এনে খুঁটিতে বেঁধে বেধরক মারপিঠ করে। খবর পেয়ে বিশ্বম্ভরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আশংকা জনক অবস্থায় ওই ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

গৃহবধূর স্বামী সেলিম মিয়া জানায়,আমার স্ত্রী আকলিমা গত রোববার আমলগ্রহনকারী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রতিপক্ষের বিরোদ্ধে মামলা দায়ের করায় আমার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে খুটিতে বেধে মারপিঠ করা হয়েছে। আমি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তবে এ বিষয়ে পুলিশ কনস্টেবল শফিকুল ইসলাম ও তার পরিবার জানায়,গৃহবধূ আকলিমা-পুলিশ সদস্যের মা সুফিয়া খাতুনকে পুলিশ সদস্যের বাড়িতে গিয়ে মারপিঠ করে। পরে আকলিমার আত্মীয়রাই তাকে মারধর করে।

এ বিষয়ে বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মোল্লা মুনির হোসেন জানান,ঘটনা সর্ম্পকে শুনেছি এখনও কেউ কোন অভিযোগ নিয়ে আসে নি। অভিযোগ পেলে তর্দন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here