গণমাধ্যমের গলা টিপে ধরে কখনোই গণতন্ত্রের বিকাশ হতে পারে না’

0
171

ণমাধ্যমের গলা টিপে ধরে কখনোই গণতন্ত্রের বিকাশ হতে পারে না বলে মনে করেন শিক্ষাবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, দেশে সাইবার অপরাধ বাড়ছে। সে কারণেই ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’-এর মতো একটি আইন প্রয়োজন ছিল, সরকার তা করেছেও। কিন্তু আইন পাস করার আগে অংশীজনের যে মতামত নিয়েছিল সরকার তার প্রতিফলন নেই আইনে। আইনের বেশ কয়েকটি ধারা সমালোচিত হওয়ার মতো। যেমন, পুলিশের হাতে একরকম ম্যাজিস্ট্রেসি পাওয়ার দেওয়া হয়েছে। এই ক্ষমতার ফলে বিনা ওয়ারেন্টে যে কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারবে পুলিশ। অর্থ্যাৎ সরকারের চেয়ে পুলিশের হাতে ক্ষমতা বেশি রয়ে গেল। এই ধারাটি যথেষ্ট অপব্যবহার হবে বলে মনে হয় আমার।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ একটি প্রশ্নবিদ্ধ প্রতিষ্ঠান। রাষ্ট্রের সামগ্রিক ও গণতান্ত্রিক স্বার্থের কথা চিন্তা করলে পুলিশের হাতে এত ক্ষমতা দেওয়া অযৌক্তিক। উপরন্তু যে ‘রাইট টু ইনফরমেশন অ্যাক্ট’ আছে তার সম্পূর্ণ পরিপন্থী হয়ে গেল ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’। অথচ উচিত ছিল সরকার ও রাষ্ট্রের প্রয়োজন এবং অংশীজনের মতামতের মধ্যে একটা ভারসাম্যপূর্ণ আইন করা, তা হয়নি। সে কারণেই আমি মনে করি ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’ পুনর্বিবেচনা করার দরকার।

এক প্রশ্নের জবাবে ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, তথ্যমন্ত্রী ইতোমধ্যেই বলেছেন যে, তিনি সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্যদের সঙ্গে কথা বলবেন। আলোচনা করবেন। আমরা আশা করব যে, চূড়ান্ত পর্যায়ের আইনটি যেন সহনীয় ও গণতন্ত্র উপযোগী হয়। কেননা গণমাধ্যমের গলা টিপে ধরে কখনোই গণতন্ত্রের বিকাশ হতে পারে না। সরকারের জন্য ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’ কোনোভাবেই সুবিধাজনক নয় বলেও মনে করেন এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here