গতি ফিরতে শুরু করেছে মোবাইল ইন্টারনেটে

0
209

গণমাধ্যম ডেস্কঃ রবিবার (৫ জুলাই) সকাল থেকেই মোবাইল ইন্টোরনেটে গতি ফিরতে শুরু করেছে। শনিবার সন্ধ্যার পর থেকেই ইন্টারনেটে ধীরগতি পাওয়া যায়। তবে আইএসপি সেবার গতি স্বাভাবিক ছিল।

উত্তরা থেকে গ্রামীণফোনের এক গ্রাহক জানিয়েছেন, তিনি রবিবার সকাল ১০টার পর থেকে মোবাইলে ফোর জি ব্যবহার করছেন। এদিকে, রবির ফোর-জি চালু হয়ে গেছে বলেও জানা গেছে।

যদিও শনিবার রাতে অন্যান্য মোবাইল অপারেটরে টু-জি পাওয়া যাচ্ছিল।

এ বিষয়ে বিটিআরটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হক জানান, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে মোবাইল ইন্টারনেটে সমস্যা হয়েছে। ত্রুটি মেরামত করলে গ্রাহকরা মোবাইলে আগের গতি ফিরে পাবে।

শনিবার সন্ধ্যার পর গ্রাহকরা অভিযোগ করেন, মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে। মোবাইল ডাটা ব্যবহার করা যাচ্ছে না।  শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গুজব ছড়ানো ও ছাত্রলীগ-যুবলীগের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষের পর সন্ধ্যা থেকেই ইন্টারনেটের গতি ধীর হয়ে গেছে। তবে গ্রাহকদের এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে একাধিক মোবাইল ফোন অপারেটরের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কেউই বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে রাজি হননি। বিষয়টি স্বীকার করেননি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারও।

ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা এ ধরনের (ইন্টারনেট বন্ধ) কোনও নির্দেশনা পাননি বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানায়।

এ বিষয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী  মোস্তাফা জব্বার বলেন,  ‘এমন কোনও কিছু আমি জানি না। আর এটা তো বন্ধ করার বিষয় নয়। কারিগরি কারণেও সমস্যা হতে পারে।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকে পোস্ট দেন, গ্রামীণফোনের মোবাইল ইন্টারনেট পাওয়া যাচ্ছে না। কেউ কেউ লিখেছেন ইন্টারনেটের স্পিড খুব স্লো। অনেকেই ধারণা করছেন, এ ঘটনার ছবি ও ভিডিও দেখা ও শেয়ার করা ঠেকাতে ইন্টারনেটের গতি ধীর করে দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মোবাইল অপারেটরগুলোকে ইন্টারনেটের গতি ১২৮কেবিপিএস করে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে কেউই উদ্ধৃত হয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

সূত্রঃ বাংলা ট্রিবিউন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here