গভীর জঙ্গলে মিলল জলদস্যুদের অস্ত্রের কারখানা

0
81

সুন্দরবনের পূর্বপাশে মাঝেরচরে গভীর জঙ্গলে সন্ধান মিলেছে জলদস্যুদের অস্ত্র তৈরির কারখানার। বুধবার (১৭ জুন) দিনভর অভিযানের পর রাতে আস্তানাটি খুঁজে পাওয়া যায়। এ সময় উদ্ধার করা হয় ৫টি পাইপগান, অস্ত্র তৈরির নানা সরঞ্জাম ও কয়েক রাউন্ড গুলি।

গভীর অরণ্যের ভেতরে ঝুপড়ি আর গাছে গাছে লুকানো বন্দুক আর অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম। সুন্দরবনের পূর্ব পাশে দিনভর অভিযানের পর সন্ধ্যায় খোঁজ এসবের খোঁজ পায় কোস্টগার্ড। উপস্থিতি টের পেয়ে আগেই পালিয়েছে জলদস্যুরা।

সুন্দরবন ও তার আশপাশে জলদস্যুরা সংগঠিত এমন খবর পেয়ে বুধবার বেলা ১২টার পর অভিযানে নামে কোস্টগার্ড পাথরঘাটা স্টেশনের সদস্যরা। সাথে ছিল পুলিশ ও সময় সংবাদ। অভিযানে পাওয়া যায় ৫টি একনালা বন্দুক, অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম ও বেশ কিছু গুলি।

কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার মেহেদি হাসান বলেন, পরিত্যক্ত অবস্থায় ৫টি অস্ত্র পেয়েছি এবং অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম পাওয়া গেছে।


অভিযান শেষে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ব্রিফিংয়ে কোস্টগার্ড জানায়, আস্তানায় অস্ত্র তৈরি করে জলদস্যু ও সন্ত্রাসীদের কাছে বিক্রি করা হতো। আলামত ও আস্তানার যে চিত্র ছিল, তাতে বোঝা যাচ্ছে, এটা একটা দেশীয় অস্ত্র তৈরির কারখানা ছিল।

২০১৮ সলের ১ নভেম্বর সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এর দুবছর না যেতেই সুন্দরবনের পাশ থেকে দস্যু আস্তানা ও অস্ত্র উদ্ধার করলে কোস্টগার্ড।সুত্র: সময়টিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here