গোয়েন্দা নজরদারিতে দেড় হাজার সাইট ও পেজ, ৩ মাসে শতাধিক ফেসবুক আইডি বন্ধ

0
201

জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। মনিটরিং করা হচ্ছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পাশাপাশি সাইবার টহল চলছে চিহ্নিত সাইট ও পেজে। গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছে দেড় হাজার সাইট ও পেজ। গত তিনমাসে শতাধিক ফেসবুক আইডি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, দেশ ও বিদেশের কয়েকটি গোয়েন্দা সংস্থা জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের রাজনৈতিক অবস্থা উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে বলে আগাম তথ্য দেয়। এসব তথ্য পাওয়ার পর থেকেই চিহ্নিত সাইট, ফেসবুক আইডিতে চলছে নিয়মিত সাইবার টহল। গত তিনমাসে শতাধিক সন্দেহভাজন ফেসবুক আইডি বন্ধ করা হয়েছে। এই আইডিগুলো থেকে উস্কানিমূলক মিথ্যা তথ্য প্রচার করা হতো বলে নিশ্চিত হওয়ার পর এ ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

গোয়েন্দা সূত্র মতে, ‘কোটা সংস্কার আন্দোলন’ ও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ফেসবুক আইডি, ফেসবুক পেইজ, লাইভ ও ইউটিউবকে এক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে। একইভাবে বিভিন্ন ধরণের গুজবও রটানো হয়েছে এসব যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে। এসব কারণে আইন শঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এবার আগেভাগেই সতর্ক অবস্থান নিয়েছে।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি সোহেল রানা জানান, সন্দেহজনক সাইটগুলো নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। এসব সাইট থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে এবং ব্যবহারকারীদের গতিবিধি সম্পর্কে পুলিশ খোঁজ-খবর নিচ্ছে। আইন বিরোধী কোনো কাজ করলেই পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে তিনি জানান।

সূত্র জানায়, দেড় হাজারেরও বেশি সাইট রয়েছে গোয়েন্দা নজরদারিতে। এসব সাইট থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত বক্তব্য, ছবি, ভিডিও নজরদারি করা হচ্ছে। যারা নাশকতা সৃষ্টি করতে পারে এমন ব্যক্তিদের ছবি, তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এসব সাইট নিয়মিত নজরদারি করছে পুলিশ সদর দফতরের ল’ফুল ইন্টারসেপশন সেল (এলআইসি)। ইতোমধ্যে এ সেলের জনবল কয়েকগুণ বাড়ানো হয়েছে। বর্তমানে পাঁচ শতাধিক জনবল তিন শিফটে এই সেলে কাজ করছে। এছাড়া সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে কোনো ব্যক্তি কিংবা প্রতিষ্ঠানকে মনিটরিং করছে পুলিশের অপরাধ তথ্য বিভাগের (সিআইডি) আইটি সেল, র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটলিয়ন এবং কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here