চট্টগ্রাম ডবলমুরিং এলাকায় বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হলেন এক তরুণী

0
23

চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানা এলাকায় ২০ বছর বয়সী এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত বান্ধবী ও তার স্বামীকে গ্রেফতার করেছে ডবলমুরিং থানা পুলিশ।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানা দিন এক নম্বর সুপারিওয়ালা পাড়ায় জনৈক চান্দু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। মূল অভিযুক্ত চান্দু মিয়া পলাতক রয়েছেন।

আটককৃত দু’জন হলেন, নুরী আক্তার (২০) ও তার স্বামী মো. অন্তর (২২)। পুলিশ জানায়, ধর্ষণের শিকার তরুণী সপ্তাহখানেক আগে ফেনী থেকে নগরীর আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিক এলাকায় চাচার বাসায় বেড়াতে আসেন। গ্রেফতার হওয়া নুরী তার চাচাত বোনের বান্ধবী। সেই সুবাদে নুরীর সঙ্গেও ওই তরুণীর বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক হয়।

রোববার সন্ধ্যায় নুরী ওই তরুণীকে তার সুপারিওয়ালা পাড়ার বাসায় বেড়াতে নিয়ে যায়। রাত সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে নুরী কৌশলে তাকে চান্দুর বাসায় পৌঁছে দেয়। বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে পাহারায় ছিল নুরী। এরই মধ্যে চান্দু মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর নুরী ওই তরুণীকে তার চাচার বাসায়ও পৌঁছে দেয়।

ওসি সদীপ কুমার দাশ বলেন, ধর্ষণের শিকার তরুণীর চাচার পরিবার থেকে অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়। তবে সেখানে ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগিতাকারী বান্ধবী ও ধর্ষককে পাওয়া যায়নি। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বন্দর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সহযোগি বান্ধবী নুরী আক্তার ও তার স্বামী মো. অন্তরকে গ্রেফতার করা হয়। মূল অভিযুক্ত পলাতক চান্দুকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে তিনি জানান।

ওসি সদীপ কুমার দাশ আরও জানান, ধর্ষণের শিকার তরুণী চাচার বাসায় যাওয়ার পর বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে বাসার লোকজন তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নিয়ে যায় এবং পুলিশকে খবর দেন। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here