চার দিনের রিমান্ডে চার আসামি

0
87

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় পুলিশের চার সদস্যকে দ্বিতীয় দফায় চার দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

রোববার বেলা ১১টার দিকে জেলা কারাগার থেকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে তাদের শারীরিক পরীক্ষা করানো হয়। এরপর তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা কারাগারের সুপার মো: মোকাম্মেল হোসেন জানান, উপ-পরিদর্শক লিটন মিয়া, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন ও আবদুল্লাহ আল মামুনকে আরও চার দিনের রিমান্ডে র‌্যাব হেফাজতে দেয়া হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাবের সিনিয়র এএসপি খাইরুল ইসলাম জানান, এই পুলিশ সদস্যদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দ্বিতীয় দফায় ২৪ আগস্ট রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এর প্রেক্ষিতে আজ তাদেরকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

এর আগে পুলিশের অন্য তিন সদস্য ওসি প্রদীপ, পরিদর্শক লিয়াকত ও এএসআই নন্দ দুলালকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদের মধ্যে প্রদীপকে চার দফায় ১৫ দিন এবং লিয়াকত ও নন্দ দুলাল রক্ষিতকে তিন দফায় ১৪ দিন করে রিমান্ডে নেয়া হয়।

তাদের মধ্যে লিয়াকত ও নন্দ দুলাল ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেও প্রদীপ রাজি হননি। তারা সবাই এখন কারাগারে রয়েছেন। এপিবিএন এর ৩ সদস্যসহ এ পর্যন্ত আটজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

৩১ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। সূত্র: চ্যানেল আই

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here