ছাত্র অপহরণ করে শিক্ষকের ৫০ হাজার টাকা দাবি

0
152

সামির নামের একটি শিশু অপহরণের অভিযোগে মাইনুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-৩-এর একটি দল। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ঢাকার বিমানবন্দর রেলস্টেশন থেকে মাইনুলকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে র‍্যাব। মাইনুলের বাড়ি নোয়াখালীতে। তিনি সোনাপুরের একটি মাদ্রাসার শিক্ষক। র‍্যাব-৩-এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে, সামিরকে প্রাইভেট পড়াতেন মাইনুল। তাদের পরিবারের সঙ্গে ভাব হয়ে যায় মাইনুলের। পড়ানোর সুবাদে শিশু সামিরও মাইনুলকে পছন্দ করত। পরে চাকরি নিয়ে নোয়াখালীতে চলে যান মাইনুল। কিন্তু ফোনে যোগাযোগ রাখতেন তিনি। সামিরের বাবা কাওসার আহমদ মাইক্রোবাসচালক।

রবিউল ইসলাম বলেন, সামিরকে অপহরণের পরিকল্পনা করে ঈদের পরদিন ঢাকায় আসেন মাইনুল। ওই দিন বিকেলে সামির তাদের বাড়ি মধুবাগের মাঠে খেলছিল। বিকেলে খেলার সময় সামিরকে ফুসলিয়ে খেলা থেকে সরিয়ে আনেন মাইনুল। তারপর তাকে নিয়ে পালিয়ে যান। ঢাকার একটি বাসায় রেখে মাইনুল সামিরের বাবা কাওসারের মাইক্রোবাসে একটি চিরকুট ফেলে যান। চিরকুটে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। দুটি মোবাইল ফোন নম্বর লিখে রাখেন মাইনুল। কাওসার পরে র‍্যাবের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। মাইনুল ফোন করে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। টাকা দিতে রাজি হলে মাইনুল বিমানবন্দর রেলস্টেশনে আসতে বলেন কাওসারকে। সেখানে মাইনুলকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

রবিউল ইসলাম বলেন, গতকাল শুক্রবার বিকেলে কাওসার টাকা নিয়ে এলে দূর থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছিলেন মাইনুল। মোবাইল ফোন ট্র্যাক করে মাইনুলকে শনাক্ত করা হয়।

-প্রথম আলো

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here