জামায়াত তো নির্বাচনই করতে পারবে না’

0
195

শুরুতেই জোরালো কোনো কর্মসূচিতে যাচ্ছে না জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া। আনুষ্ঠানিকভাবে নমনীয় কর্মসূচি দিয়েই যাত্রা শুরু করবে একাধিক রাজনৈতিক দল নিয়ে গঠিত জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া। আপাতত তিনটি জেলায় জনসভা করবে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া। এছাড়াও বিভিন্ন জেলায় ও জেলা শহরে সভা সমাবেশের মাধ্যমে জনভিত্তি তৈরি করবে ঐক্য প্রক্রিয়া।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর তোপখানা রোডের নাগরিক ঐক্যের রাজনৈতিক কার্যালয়ে চলা এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে কর্মসূচি নির্ধারিত হয়েছে।
নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র এই প্রতিবেদককে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। আজ এ কর্মসূচি বিকেল সাড়ে তিনটায় জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে ঘোষণা করা হবে। কর্মসূচিতে থাকবে- ১৮ সেপ্টেম্বর খুলনা হাদিস পার্কে জনসভা, ২৯ সেপ্টেম্বর হাসান আলী স্কুল মাঠে জনসভা ও ৫ অক্টোবর ময়মনসিংহের কৃষ্ণচূড়া চত্ত্বরে অনুমতি না পেয়ে টাউন হল মাঠে জনসভা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতের বৈঠকে ড.কামাল হোসেন শহীদ মিনার থেকে শনিবার সকালে কর্মসূচি ঘোষণা করার কথা জানালেও পরে সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণার সময়ের ব্যাপারে পরিবর্তন আসে। জোটের নেতা ও নাগরিক ঐক্যের কেন্দ্রীয় নেতা ডা. জাহেদ উর রহমান এই প্রতিবেদকে বলেন, যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান বি চৌধুরীর শারীরিক অসুস্থতার কারণে সকালের আয়োজন পিছিয়ে বিকালে নেওয়া হয়েছে।

এদিকে শহীদ মিনারে থেকে কর্মসূচি ঘোষণার না ব্যাপারে ব্যাখা দেন গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি এডভোকেট সুব্রত রায় চৌধুরী। তিনিবএই প্রতিবেদককে বলেন, আমরা শহীদ মিনারেই করতে চেয়েছিলাম। কিন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.আখতারুজ্জামান ও প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী বিষয়টিতে আপত্তি জানিয়েছেন। কারণ হিসেবে তারা বলেছেন, আমরা এখন কাউকেই শহীদ মিনারে কর্মসূচি করতে দিচ্ছি না। আপনাদের অনুমতি দিলে অন্যদেরও দিতে হবে। তবে আমরা প্রেসক্লাব থেকে কর্মসূচি ঘোষণা করে শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করব।

এ বিষয়ে নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্নাও একই কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ঢাবি ভিসি আমাকে ফোন করে শহীদ মিনারে থেকে কর্মসূচি ঘোষণার দেওয়ার বিষয়ে তাদের আপত্তি কথা জানান।

অনুমতি না দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ভিসি আখতারুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না, জানেন প্রক্টর। প্রক্টরের গোলাম রাব্বানী সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তারা আমাদের কাছে লিখত কোন অনুমতি চাননি। ফোনে চেয়েছেন। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা চলছে। আজও আছে। পরীক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে আমরা বিশেষ কোনো ব্যক্তি কিংবা সংগঠনকে অনুমতি দিচ্ছি না ঢাবির আওতাধীন কোনো স্থানে কর্মসূচি করতে।

বৈঠকে থাকা নাগরিক ঐক্যের কেন্দ্রীয় এক নেতা এই প্রতিবেদককে জানান, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তফ্রন্ট ও গণফোরাম। আগামীকাল শনিবার দুই জোট মিলে পাঁচ দফা দাবি ও নয়টি লক্ষ্য প্রকাশ্যে ঘোষণা করবেন জোটের নেতারা। যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়ার দফাগুলোকে সমন্বয় করে পাঁচ দফা দাবি চূড়ান্ত করা হয়েছে। একইসঙ্গে জোটের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে নয়টি। মোট ১৪টি দফা প্রস্তাব করবেন জোটের নেতারা।

নাগরিক ঐক্যের একটি সূত্র জানায়, পাঁচ দফা দাবির মধ্যে সবগুলোই সরকারের উদ্দেশে করা। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে— নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করা, তফসিলের আগেই সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে নির্বাচনি রোডম্যাপ নির্ধারণ, নির্বাচনের একমাস আগে সংসদ ভেঙে দেওয়া, বর্তমান সরকার বাতিল করা, নির্বাচনের একমাস আগে ও ১০ দিন পর পর্যন্ত ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতাসহ সেনাবাহিনী মোতায়েন করা, ইভিএম বাতিল, নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা। নির্বাচনকালীন সরকারের কোনও ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ না নেওয়া। সংবিধানের সাত অনুচ্ছেদে বর্ণিত সংবিধানের প্রাধান্যকে সমুন্নত করে রাষ্ট্র পরিচালনা করতে হবে। স্বাধীন ও ক্ষমতাসম্পন্ন নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে। গণমুখী প্রশাসন তৈরি করা, রাষ্ট্রের আর্থিক শৃঙ্খলা আনা, সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করা ইত্যাদি বিষয়গুলো থাকবে। এছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলনে গ্রেফতার ব্যক্তিদের মুক্তি, মামলা প্রত্যাহার করার আহ্বান থাকতে পারে।

নাগরিক ঐক্যের সমন্বয় শহীদুল্লাহ কায়সার এই প্রতিবেদকে বলেন, যুক্তফ্রন্ট ও গণফোরাম যুগপদভাবে আগামীতে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের প্রশ্নে সব কিছু করবে। যেখানে যাওয়া দরকার যাবে। যা করা প্রয়োজন তাই করবে।

জামায়াতে ইসলামী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জামায়াত নিয়ে আমাদের কোনও মাথাব্যথা নেই। আমরা জনগণকে নিয়ে চিন্তা করছি। জামায়াত তো নির্বাচনই করতে পারবে না। আমরা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি নিয়ে কাজ করব।

নাগরিক ঐক্যের এই নেতা জানান, যুক্তফ্রন্ট এ যুক্ত হয়েছে আরও তিনটি দল। সোনার বাংলা, জনদল ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here