জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস নিলেন তথ্যমন্ত্রী

0
202

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগে ক্লাস নিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। গত বছর থেকেই বিভাগটিতে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের একটি কোর্সের ক্লাস নেওয়া শুরু করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ছিল ‘গ্লোবাল ক্লাইমেট চেঞ্জ’ নামক এ কোর্সটির শেষ ক্লাস। এদিন বিকেল চারটা থেকে সন্ধ্যা সোয়া ছয়টা পর্যন্ত ক্লাস নেন মন্ত্রী। এ পর্যন্ত এ কোর্সে পাঁচ দিন ক্লাস নেন তিনি।

খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে মন্ত্রী নিয়মানুযায়ী প্রতি কোর্সের জন্য এক হাজার টাকা করে পাবেন। আপাতত অন্য কোর্সে পড়ানোর বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।বিভাগটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ আমির হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আমরা পরিবেশ নিয়ে কাজ করা অন্যান্য ব্যক্তিকে শিক্ষক হিসেবে নিয়ে আসব। এ উদ্যোগটা আমরা নিয়েছি যাতে আমাদের শিক্ষার্থীরা মাঠপর্যায়ে যে কাজ হচ্ছে তার সঙ্গে আপডেট থাকতে পারে।

তিনি আরও বলেন, মন্ত্রী এতদিন খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে ক্লাস নিয়েছেন। ওনার ব্যস্ততা এখন বেড়ে গেছে। সামনে যদি সেভাবে ক্লাস নিতে না পারেন তাহলে তাকে আমরা মাঝে মাঝে অতিথি টিচার হিসেবে নিয়ে আসব।এদিকে তথ্যমন্ত্রী ক্যাম্পাসে আসার পর স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও প্রশাসনের ব্যক্তিরা কথা বলতে আসলে তিনি ভিড় না করে তাদের চলে যেতে বলেন।

মন্ত্রীর অফিস কিংবা বাসায় গিয়ে কথা বলতে বলেন।জানা যায়, গতবছর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুরোধে একটি ক্লাস নিলে সেখানকার শিক্ষার্থীরা ড. হাছান মাহমুদকে নিয়মিত শিক্ষক হিসেবে পেতে অনুরোধ করেন।শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দাবি ও অনুরোধে ড. হাছান মাহমুদ গত সেপ্টেম্বর থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন।

এর আগে পরিবেশ বিজ্ঞান ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিষয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি এবং নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা করেন ড. হাছান মাহমুদ।শিক্ষাজীবনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়ন বিষয়ে সম্মানসহ স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন তিনি। বেলজিয়াম ব্রিজ ইউনিভার্সিটি অব ব্রাসেলস থেকে ‘হিউম্যান ইকোলজি’ ও ইউনিভিার্সিটি অব লিবহা দু ব্রাসেলস থেকে আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিষয়ে মাস্টার্স করেন।

এরপর পরিবেশ রসায়ন বিষয়ে বেলজিয়ামের লিম্বুর্গ ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি অর্জন করেন।শিক্ষাজীবন শেষ করে ব্রাসেলসের ইউরোপিয়ান ইনস্টিটিউট ফর স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ-এ ভিজিটিং ফেলো এবং একাডেমিক বোর্ড মেম্বার হিসেবে মনোনীত হন তিনি।বর্তমানে ড. হাছান মাহমুদ দেশে এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে একজন খ্যাতিমান পরিবেশবিদ হিসেবে সুপরিচিত। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।পরবর্তীতে সরকারের পরিবেশমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও দলের অন্যতম মুখপাত্র। এছাড়া জাতীয় সংসদের বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হিসেবে সফলতার সঙ্গে কাজ করেছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি হয়ে তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পান ড. হাছান মাহমুদ। সূত্র: আরটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here