জীবপ্রযুক্তি জ্ঞানের চর্চা করতে হবে : বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী

0
152

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, বাংলাদেশের সম্ভাবনা অফুরান। এ অবস্থায় জীবপ্রযুক্তি জ্ঞানের চর্চা করে তা কাজে লাগাতে হবে। নতুবা আমরা পিছিয়ে পড়ব। শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নভোথিয়েটারে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী ‘জাতীয় জীবপ্রযুক্তি মেলা-২০১৮’ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইয়াফেস ওসমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নত-সমৃদ্ধ দেশের পথে এগিয়ে চলেছে। বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তির স্পর্শে সারা দেশ বদলে গেছে। বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে।

জীবপ্রযুক্তি বিষয়ক শিক্ষা, গবেষণা ও জীবপ্রযুক্তি ভিত্তিক ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং জনসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে দেশে প্রথম বারের মত এ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এ মেলার আয়োজন করে জীবপ্রযুক্তি বিষয়ক বিশেষায়িত গবেষণা প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি (এনআইবি)।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি বিষয়ক) মো. আবুল কালাম আজাদ, কৃষি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. নাসিরুজ্জামান এবং ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজির মহাপরিচালক ড. মো. সলিমুল্লাহ।

অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী প্রদর্শনী স্টলে ৩টি ক্যাটাগরিতে ৯ জন, পোস্টার প্রতিযোগিতায় ২টি ক্যাটাগরিতে ৬ জন, বিজনেস আইডিয়া প্রতিযোগিতায় ৩ জন এবং ৩ মিনিটে থিসিস প্রেজেন্টেশন ক্যাটাগরিতে ৩ জনসহ মোট ২১ জন বিজয়ীকে পুরস্কার প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, মেলায় বাংলাদেশের ২৪টি সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ১ হাজার ২০০ জন ছাত্র-ছাত্রীসহ জীবপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট গবেষণা প্রতিষ্ঠান, স্কুল, কলেজ, শিল্প, ব্যবসা ও সেবা প্রতিষ্ঠান, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং স্ব-শিক্ষিত গবেষকরা ৭০টি স্টলে তাদের কার্যক্রম প্রদর্শন করে। এছাড়াও মেলায় অন্যান্য কার্যক্রমের মধ্যে ছিল জীবপ্রযুক্তি বিষয়ে উপস্থাপনা, গোল টেবিল বৈঠক, গবেষণা ও জনসচেতনতামূলক পোস্টার প্রেজেন্টেশন প্রতিযোগিতা, বায়োটেকনোলজি বিজনেস আইডিয়া প্রতিযোগিতা, ৩ মিনিটে গবেষণা থিসিস উপস্থাপন প্রতিযোগিতা, কুইজ প্রতিযোগিতা, বায়োইনফরমেটিক্স প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here