তনুশ্রী-নানা বিতর্ক : ডেইজিকে ডাকল মুম্বাই পুলিশ

0
168

বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনে বলিউডে যৌন নিপীড়নবিরোধী ‘হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলন’ শুরু করেছিলেন সাবেক অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। তনুশ্রীর অভিযোগ, ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির একটি আইটেম গানের শুটিং চলাকালে নানা তাঁকে যৌন হেনস্তা করেছিলেন। এর পরই তিনি রাজনৈতিক দল থেকে হুমকি পান, তাঁর গাড়ির ওপর হামলা চালানো হয়।

যা হোক, তনুশ্রীর অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে এসেছেন পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা নানা পাটেকার। তনুশ্রীর বিরুদ্ধে মানহানি মামলাও করেছেন তিনি। তনুশ্রীও সুবিচার চেয়ে পাল্টা মামলা করেছেন। সেই মামলার তদন্ত করছে মুম্বাই পুলিশ।

ইন্ডিয়া টিভির অনলাইন সংস্করণ জানিয়েছে, বক্তব্য রেকর্ড করার জন্য অভিনেত্রী ডেইজি শাহকে ডেকে পাঠিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। ১০ বছর আগের যে আইটেম গানটির শুটিং নিয়ে এত বিতর্ক, সে গানে সহযোগী কোরিওগ্রাফার ছিলেন ডেইজি শাহ।

সংবাদ সংস্থা এএনআই তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টে এ খবর জানিয়ে পোস্ট দিয়েছে, “নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে তনুশ্রী দত্তর হেনস্তার অভিযোগ : বক্তব্য রেকর্ড করার জন্য মুম্বাই পুলিশ ডেকে পাঠিয়েছে অভিনেত্রী ডেইজি শাহকে। ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির গানের সহযোগী কোরিওগ্রাফার ছিলেন শাহ।”

কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্যর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ তুলেছিলেন তনুশ্রী দত্ত। মিড ডে জানিয়েছে, কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্য তাঁর বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ নাকচ করে তনুশ্রীকে ১২ পৃষ্ঠার একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। তাঁর পক্ষে চিঠি পাঠান আইনজীবী পদ্মা শিলতকার।

ওই চিঠিতে গণেশ অভিযোগ করেন, শুটিং সেটে নিজের ভুল ও পারফর্ম করতে অক্ষমতা ঢাকতে মিথ্যা অভিযোগ করছেন তনুশ্রী দত্ত। তাঁর ভাষায়, ‘এটা দত্তর সঙ্গে একক নাচ ছিল না। এটা খুবই পরিকল্পিত দলীয় নাচ ছিল ও এতে ১০০ জন পারফর্ম করছিল, লিড রোলে ছিলেন তিনি। আমার তত্ত্বাবধানে শ্রীক হলে ২০০৮ সালের ১৭-২০ মার্চ রিহার্সেল হয়েছিল।’

তনুশ্রী খুবই ‘খুঁতখুঁতে’ উল্লেখ করে গণেশ আরো বলেন, ‘রিহার্সেল চলাকালে কয়েকজন সহযোগী নৃত্যশিল্পী তাঁকে নাচের পদক্ষেপ শিখিয়েছিল। তাঁর খুঁতখুঁতে স্বভাবের কারণে আমার টিম ও আমাকে খুব বেগ পেতে হয়েছিল। রিহার্সেলের সময় নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে তিনি আমাকে কোনো নালিশ করেননি।’  এনটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here