তফসিল ঘোষণা কিছুটা পেছাতে পারে কমিশন

0
207

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিভিন্ন জোট ও দলের সংলাপের কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা কিছুটা পিছিয়ে দিতে পারে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ ক্ষেত্রে তফসিল ঘোষণা হতে পারে আগামী ১০ নভেম্বর । ২৭ ডিসেম্বর থেকে সরে এসে ২২ ডিসেম্বর সংসদ নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হতে পারে।

এর আগে গতকাল শনিবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন স্বাক্ষরিত একটি চিঠি ইসিকে দেওয়া হয়। চিঠিতে সংলাপ শেষ হওয়ার আগে তফসিল ঘোষণা না করার অনুরোধ জানানো হয়। ঐক্যফ্রন্ট ৮ নভেম্বরের পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আবারও সংলাপে বসার আগ্রহের কথাও জানিয়েছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি তথা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজনৈতিক দল বা জোটের সংলাপ চলবে ৭ নভেম্বর পর্যন্ত। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গতকাল বলেছেন, ‘আমরা ৮ তারিখ পর্যন্ত যেতে পারছি না। সব মিলিয়ে প্রায় ৮৫টি দল প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে বসতে চায়। কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরে সংলাপ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব না। কারণ নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করবে।’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা গত বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘সংলাপের বিষয়টি আমাদের পর্যালোচনায় রয়েছে। আমরা এখনো তফসিলের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্তই নিইনি। ৪ ডিসেম্বর তফসিল নির্ধারণ নিয়ে কমিশনের সভা হবে।’

এ বিষয়ে ইসি সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ৪ নভেম্বর তফসিল নির্ধারণ নিয়ে সভা করার পর ওই দিনই সিইসির ভাষণ রেকর্ড করা প্রায় অসম্ভব। সে ক্ষেত্রে তফসিল ঘোষণা হতে পারে ৭ অথবা ৮ ডিসেম্বর। এর আগে সিইসি ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদলকে জানিয়েছিলেন, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here