তিন খানও কি হারিয়ে যাচ্ছেন

0
22

১৪ জুন থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর। এই চার মাসে ভারতের মূলধারার মিডিয়ায় বলিউড নিয়ে যত খবর ছাপা হয়েছে, তার প্রায় ৭৫ শতাংশ প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে সুশান্ত সিং রাজপুতকেন্দ্রিক। অর্থাৎ প্রতি চারটি খবরের তিনটিই ছিল কোনো না কোনোভাবে সুশান্তকে জুড়ে। ‘ডেকান ক্রনিকল’, ‘বলিউড হাঙ্গামা’, ‘ইকোনমিক টাইমস’, ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’সহ অসংখ্য ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম তাদের প্রতিবেদনে ইঙ্গিত দিয়েছে, ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ হারাচ্ছে বলিউড।
বড় তারকারা নেই ছবির আলোচনায়

গত এক দশকে জ্বলে উঠতে পারেননি বলিউড বাদশাহ ‘শাহরুখ খান’। এখন তাঁকে বলা হচ্ছে ‘ফ্লপ বাদশাহ’। সালমান খান যত বড় তারকাই হোন না কেন, তাঁর মাথার ওপর থেকে মামলার কলঙ্ক সরেনি। গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে, মোবাইল কেড়ে নিয়েও হয়েছেন খবরের শিরোনাম। ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’–এর মতো ফ্লপ ছবি, ফাতিমা সানা শেখের সঙ্গে প্রেম, তুরস্কের ফার্স্ট লেডির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ—এসব নিয়ে বহুবার ‘ট্রল’ আর নেতিবাচক খবরের শিরোনাম হয়ে এসেছেন আমির খান। তিন খানের প্রত্যেকেরই নিজেদের আইকনিক অবস্থান খানিকটা হলেও নড়বড়ে হয়ে গেছে। তিনজনই হারিয়েছেন বেশ কিছু ব্র্যান্ডের এনডোর্সমেন্ট। সূত্র: প্রথম আলো

ছয় হাজার কোটি টাকা ক্ষতি
ইতিমধ্যে কেবল ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বলিউডে ছয় হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। এই রিপোর্ট প্রকাশ করে তুমুল সাড়া ফেলেছে ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’। দীর্ঘদিন ধরে ছবি মুক্তি ছিল বন্ধ। বন্ধ ছিল শুটিংও। পরিচালক, প্রযোজক, কলাকুশলী, ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িত সবাই দীর্ঘ আর অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বেকার ছিলেন। বড় বাজেটের ছবিগুলো মুক্তি পাচ্ছে বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে। বড় তারকারা ওটিটি প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে বেশ কিছু চুক্তিও সেরেছেন।

ভুয়া ফলোয়ার–কাণ্ড
বলিউডের প্রথম সারির দুই অভিনেত্রী—দীপিকা পাড়ুকোন ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক কিংবা টুইটার—এই দুই অভিনেত্রীর ফলোয়ারের সংখ্যা তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। অভিযোগ উঠেছে, দুজনেই নাকি টাকা দিয়ে ফলোয়ার কিনেছেন। এ কারণে পুলিশ ডেকেও পাঠিয়েছে এই দুজনকে। ইনস্টাগ্রামে পাঁচ কোটি ফলোয়ারের মাইলফলক পার করা এই দুই তারকাই তাঁদের প্রভাব কাজে লাগিয়ে গা থেকে মুছেছেন এই কলঙ্কের দাগ।

মৌলিক গল্পের অভাব
বলিউডে ভালো আর মৌলিক গল্পের খরা তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। বলিউড তাই ঝাঁপিয়ে পড়েছে পুরোনো সিনেমার রিমেক, দক্ষিণ ভারতীয় বা বিদেশি ছবির পুনর্নির্মাণ এবং বায়োপিকের দিকে। মৌলিক যে গল্পগুলো নিয়ে কাজ হচ্ছে সেগুলো খুবই দুর্বল, গান আর অ্যাকশননির্ভর। এই সুযোগে অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোতে জায়গা করে নিচ্ছে দক্ষিণ ভারতীয় কনটেন্ট। সামনে আসছে ‘আন্ডাররেটেড’ এসব ইন্ডাস্ট্রির অসংখ্য ছবি। আন্তর্জাতিক উৎসবগুলোতেও মনোযোগ কাড়ছে।

নড়বড়ে আর লোকদেখানো সম্পর্ক
বলিউডে নাকি কেউ কারও বন্ধু হয় না—এমন কথা বলিউডে ভাসছে বহুদিন ধরে। সে প্রমাণও মিলেছে সম্প্রতি। আজ কঙ্গনা এক কথা বলবেন তো কাল তাপসী বলবেন তার ঠিক উল্টো কথা। কেউ কাউকে ছোট করতে একচুলও ছাড় দেন না। বলিউডে প্রথা ভেঙে নারীপ্রধান চলচ্চিত্রের যে জোয়ার শুরু হলো, প্রত্যেকেরই দাবি, তিনিই সেই জোয়ারের স্থপতি। তরুণ তারকা রণবীর কাপুর অভিনেতা হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করেছেন বটে, তবে কপালে জুটেছে ‘প্লেবয়’ তারকা। সোনম, দীপিকা, ক্যাটরিনা, আলিয়া—তাঁর প্রেমিকার তালিকা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে। সারা আলী খান অভিনয় নিয়ে যতটা না আলোচনায় এসেছেন, তার চেয়ে ঢের বেশি আলোচনা তাঁর প্রেম নিয়ে।

মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রের দিক থেকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা সব মিলিয়ে খানিকটা হলেও নড়বড়ে হয়েছে। এমনিতেই করোনা তছনছ করে দিয়েছে বলিউডকে। আর সুশান্তের অপমৃত্যুর ঘটনা যেন কফিনে ঠুকে দিয়েছে শেষ পেরেক। এর মধ্যে জয়া বচ্চন সংসদে বলিউডের ইমেজ রক্ষার চেষ্টা করায় আরও ঘোলা হয়েছে পরিস্থিতি। সবকিছু মিলিয়ে আবার নতুন করে পুরোনো স্রোত ফিরিয়ে আনতে বেগ পেতে হবে বটে। সিনেমা হল গতিশীল করাও একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এখনো অতটা স্বাভাবিক হয়নি শুটিং। তবে সব সংকট কাটিয়ে পুরোনো গতিতে বলিউডকে দেখতে এখনো আশাবাদী বলিউড ভক্তরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here