দাঁড়াতে শিখুন

0
446

দাঁড়াতে শিখুন একজন সৎ সংবাদকর্মীর ভেতরে-বাইরে সমানভাবে সচেতন হতে হয়।সামস্টিক তো বটেই, নিজ নিজ অফিসের ভেতরও যে কোন বৈষম্য বা অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হয়। প্রতিবাদের পক্ষে সবাইকে দাঁড় করাতে শিখাতে হয়। মনে রাখবেন, আপনার চোখের সামনে ঘটে যাওয়া অন্যায় বা বৈষম্যের শিকার একদিন আপনিও হতে পারেন। এসব অসভ্যরা আস্কারা পেয়ে একদিন আপনার কাঁধেও চেপে বসতে পারে। বসবে। সুতরাং দাঁড়াতে শিখুন।

মাস শেষে বেতনের নামে কিছু টাকার জন্য, পেশাকে অবৈধ ক্ষমতার শক্তি হিসেবে ব্যবহারের জন্য, অন্যের অনুকম্পা বা কিছু অন্যায় সুবিধা নিতে- এই পেশা নয়। সাংবাদিকতা ভীষন আবেগ ও উদারতার পেশা। ত্যাগ সহিষ্নুতার পেশা। সৎ সাহস নিয়ে সত্যের সাথে আপোষহীন বেঁচে থাকার পেশা। এসব থেকে বিচ্যুত হলে, আপনি রূপ নেবেন ঘৃন্য এক খন্ড মাংসপিন্ডে।

মনে রাখবেন, আপনার অসততা ও সুবিধাবাদী আচরণ, আপনার সন্তানকেও অসৎ করবে। আপনার সামনে আপনারই মতো আরেকজন অসৎ মানুষ বেড়ে উঠবে। পচা দুর্গন্ধময় গণমাধ্যম কপালে তিলক হয়ে থাকবে আপনার। মনে রাখবেন-

তেলাপোকার মতো নির্লিপ্ত নির্নিমেষ জীবন মানুষের নয়;
মানুষ মানে পিঠ সোজা করে দাঁড়ানো টানটান শালবৃক্ষ।

জয় হোক মানুষের

– প্রতীক ইজাজ

প্রধান প্রতিবেদক,

দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here