ধনবাড়ীতে চাচার হাতে ভাতিজি ধর্ষণের শিকার

0
210

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে চাচার হাতে ২ বছরের ঘুমন্ত শিশু ভাতিজি ধর্ষণের শিকার হয়ে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

পুলিশ ও শিশুর পারিবারিক সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে ধনবাড়ী উপজেলার বীরতারা ইউনিয়নের পাঁচনখালী গ্রামে নিজ বাড়ীতে ঘরের ভিতর ঘুমিয়ে ছিল ২ বছরের ওই কন্যা শিশুটি।

এ সময় বাড়ীতে কেউ না থাকার সুবাদে ওই শিশুর বাবার চাচাতো ভাই সোহেল রানা (১৮) ঘুমন্ত শিশুটিকে গামছা দিয়ে মুখ বেধে ধষর্ণের চেষ্টা করে। এতে শিশুটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে রক্তাক্ত শিশুটিকে মারা গেছে ভেবে বখাটে সোহেল গামছা দিয়ে ঢেকে চলে যায়। শিশুটির মা-বাবা বাড়ীতে এসে এ অবস্থা দেখে শিশুটিকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে শিশুটির অবস্থার আরো অবনতি হলে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. মমতাজ উদ্দিন আহমেদ রাকিব জানান, শিশুটির যৌনাঙ্গে ব্যাপক আঘাত প্রাপ্ত ও রক্তক্ষরণ হয়েছে। শিশুটির অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ধনবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা মন্ডল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ বিষয়ে ধনবাড়ী থানায় ধর্ষণ চেষ্টার মামলা (নং- ১৩, তারিখ- ২৮/০৮/২০১৮) দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য ধর্ষক সোহেল রানা’র চাচা সৌদি আরব প্রবাসী ছালাম ও তার বাহমভূক্ত লোকজন মঙ্গলবার রাতে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে শিশুটির বাবা মিনহাজকে ম্যানেজের চেষ্টা করছে। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হওয়ায় ধামাচাপা দিতে পারছে না।

এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্য হাফিজুর রহমান জানান, ঘটনাটি খুবই ন্যাক্কারজনক মেয়েটির অবস্থা খুব আশঙ্কাজনক। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষী ব্যক্তির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

বীরতারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম শফি জানান, শিশুটি ধর্ষণের ঘটনার কথা শুনেছি। তবে এ বিষয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক যা বলবেন, তাই চুড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে।

শিশুটির বাবা মিনহাজ উদ্দিন এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here