ধামরাইয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, থানায় মামলা

0
189

ঢাকার ধামরাইয়ে জমি জমা সংক্রান্ত বিরুদের জের ধরে উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের উত্তর হাতকোড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা সফিউদ্দিন আহমেদকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে একই এলাকার মৃত বাহার উদ্দিনের ছেলে নরুল ইসলাম (৫০) নরুল হক (৫৫) দুই ভাই ও তাদের ভাড়াট্টে সন্ত্রাসী বাহিনীরা।

গত বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে জমি সংক্রান্ত বিরুদের জের ধরে এ হামলার ঘটনাটি ঘটে।এ ঘটনায় ৭ সেপ্টেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধা সফিউদ্দিন আহমেদের বড় ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ ও ৪/৫ জন অজ্ঞাত নামা দিয়ে ধামরাই থানায় একটি হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করে।মামলার ১০ দিন পার হয়ে গেলেও কাউকে আটক করতে পারেনি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায় গত বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে আনুমানিক সাড়ে ৫ টার সময় মুক্তিযোদ্ধা সফিউদ্দিন আহমেদ ফজরের নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ির পাশে উত্তর হাতকোড়া বাহার উদ্দিন জামে মসজিদে দক্ষিণ পূর্ব কোনে পৌঁছানো মাত্র আগে থেকে পূর্ব পরিকল্পিত উৎ পেতে থাকা মোহাম্মদ আলীর হুকুমে নরুল ইসলাম সহ ৪/৫ জন অজ্ঞাত নামা সফিউদ্দিনের উপর দ্যা,ছ্যানদ্যা,লোহার রড,শাবল,লাঠি সোটা নিয়ে তার দিক থেকে হামলা চালায়।এসময় নরুল ইসলামের হাতে থাকা ছ্যানদ্যা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দিয়ে মারাত্মক কাটা রক্তাক্ত জখম করে।

বর্তমানে বীর মুক্তিযোদ্ধা সফিউদ্দিন আহমেদ মাথায় ৮ টি সেলাই নিয়ে ১২ দিন যাবত ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাদিন রয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আবু সাঈদ জানান,ঘটনার পর থেকে আসামিরা আত্মগোপনে রয়েছে।আসামিদের ধরার অভিজান অব্যাহত রয়েছে। খুব দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার করা হবে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here