নবনির্মিত তোশাখানা জাদুঘরের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

0
197

“প্রজন্মের পর প্রজন্মের জন্য সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে” বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) সকালে রাষ্ট্রীয় দেশি-বিদেশি উপহার সংরক্ষণ এবং প্রদর্শনীর জন্য নবনির্মিত তোশাখানা জাদুঘরের উদ্বোধন করে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের পাশে নবনির্মিত এ স্থাপনার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের তত্ত্বাবধানে এ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

গেল এক দশকে দেশ অনেক পরিবর্তন হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বাধীনতার সুফল সবার কাছে পৌঁছে দিয়ে সুবর্ণজয়ন্তীর আগে দারিদ্রমুক্ত, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।

বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানের পক্ষ থেকে পাওয়া এসব উপহার সামগ্রী এবার সরাসরি দেখার সুযোগ পাবেন সাধারণ মানুষ। রাজধানীর আগারগাঁয়ে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের কাছে ৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত এ জাদুঘরের নাম দেওয়া হয়েছে তোশাখানা জাদুঘর। সরকারি মর্যাদায় পাওয়া বিদেশি উপহারও প্রদর্শনীর জন্য স্থান পাবে এ জাদুঘরে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখানে এলে নানা দেশের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত হবার সুযোগ পাবেন সাধারণ মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২০০১ সালে আমরা আসতে পারিনি। সেসময় জামায়াত-বিএনপি ক্ষমতায় আসে। যেহেতু এসব উপহারে আমার নাম লেখা আছে, কিছু তারা লুটপাট করে ফেললো, কিছু ফেলেই দিল। বিশেষ করে পেইন্টিংগুলো ফেলেই দিল। তখন ওখানকার স্টাফরা অনেক কিছু রেখে দেয়। কোন ছবিতে নৌকা থাকতে পারবে না, এটা বিএনপির একটি দিক ছিল।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গেল ১ দশকে দেশ অনেক বদলেছে। জানান, সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে তার সরকার।

তিনি আরো বলেন, ‘আজ বাংলাদেশ অনেক উন্নত হয়েছে। আমরা চাই আরো উন্নত হোক।’ জাদুঘরের রক্ষণাবেক্ষণের ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের আন্তরিক হবারও নির্দেশ দেন সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা। সময়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here