নাটোরে ভিজিএফের ৪৮ মেট্রিক টন পচা চাল ফেরত পাঠালেন সাংসদ

0
164

গণমাধ্যম ডেস্কঃ নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া সরকারি খাদ্য গুদাম থেকে ভিজিএফ কর্মসূচির জন্য বরাদ্দ দেওয়া তিন ট্রাক পচা চাল ফেরত পাঠিয়েছেন নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস।

সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস রোববার দুপুরে বনপাড়ায় সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈদের আগে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় দরিদ্রদের জন্য পরিবার প্রতি বিনা মূল্যে ২০ কেজি করে চাল বিতরণের নির্দেশ দিয়েছেন। খাওয়ার জন্য দেওয়া এ চালের গুণগত মান উন্নত ও ওজন সঠিক দেওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন। এই নির্দেশনার অংশ হিসেবে পাবনা জেলার মুলাডুলি সরকারি খাদ্য গুদাম থেকে ৪৮ মেট্রিক টন চাল তিনটি ট্রাকে নাটোরের বনপাড়া সরকারি খাদ্য গুদামে পাঠানো হয়। এসব চাল বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের পাঠানোর সময় দেখা যায় সেগুলো পচা ও খাওয়ার অযোগ্য। খবর পেয়ে তিনি গুদামে এসে এসব চাল সরবরাহ বন্ধ করে দেন। একই সঙ্গে তিন ট্রাক চাল মুলাডুলি খাদ্য গুদামে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেন। তিনি ওই গুদামের কর্মকর্তাকে চালগুলো যথাযথ পন্থা অনুসরণ করে ধ্বংস করারও পরামর্শ দেন।

এ ব্যাপারে বনপাড়া খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন জানান, ‘ফাস্ট ইন-ফাস্ট আউট’ নিয়মের মাধ্যমে এসব চাল তাঁর গুদামে ঢুকেছিল। চাল খাবার অনুপযোগী হওয়ায় তা সাংসদের পরামর্শে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

মুলাডুলি খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুক জানান, তিনি এক মাস আগে এখানে যোগদান করেছেন। কিন্তু নষ্ট চালগুলো আট মাস আগে অর্থাৎ আমন মৌসুমে মুলাডুলি খাদ্য গুদামে সংরক্ষণ করা হয়েছে। উত্তরাঞ্চলের আটটি জেলা থেকে এসব চাল সংরক্ষণ করা হয়েছিল। সংরক্ষণের সময় কেন চালের গুণগত মান যাচাই করা হয়নি জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ওই সময় আমি ছিলাম না তাই বলতে পারব না।’ তিনি এ ব্যাপারে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

পরে বড়াইগ্রাম পৌর চত্বরে সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভিজিএফ কার্ডধারী ৩ হাজার ৮১টি পরিবারের মধ্যে মাথাপিছু ২০ কেজি করে ভালো চাল বিতরণের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here