নাম বদলানোর পরেও বিপাকে সল্লু

0
178

নাম বদলানোর পরেও বিপদ কাটলো না সলমনের৷ আয়ুশ শর্মা এবং ওয়ারিনা হুসেনের ডেবিউ ছবি ‘লাভরাত্রি’ নাম বদলে হল ‘লাভযাত্রি’৷ ‘হিন্দু আউটফিট’ নামের এক সংগঠন বুধবার গুজরাত হাই কোর্টে আর্জি জানিয়েছে যে ‘লাভযাত্রি’ টাইটেলটিও তাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়৷ এখনও টাইটেলটির সঙ্গে নবরাত্রির মিল রয়েছে৷

গত বুধবার সলমন সহ আরও সাতজন অভিনেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে, মামলা গড়িয়েছে মুজফফরপুর আদালত পর্যন্ত৷ অভিযোগকারী এক আইনজীবী সুধির ওঝা৷ তাঁর অভিযোগ আসন্ন ছবি ‘লাভরাত্রি’ টাইটেলটি হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করেছে৷

মুজফফরপুরের সাব-ডিভিশনাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শৈলেন্দ্র রাইয়ের কাছে আবেদন জমা পড়ে৷ তিনি সেই আবেদন বুধবার মনজুর করেন৷ তারপরই মিঠানপুর থানায় সলমন এবং ছবির দুই অভিনেতা আয়ুশ শর্মা (সলমনের ভগ্নিপতি) এবং অভিনেত্রী ওয়ারিনা হুসেনের বিরুদ্ধে এফআইআরটি রেজিস্টার্ড হয়৷ ৬ সেপ্টেম্বর সুধির ওঝা আবেদনটি আদালতে জানিয়ে বলেছিলেন নবরাত্রি উৎসবের নামে অশ্লীলতা দেখানো হয়েছে৷

ওঝার আবেদনে এও লেখা আছে যে ছবির টাইটেল মা দুর্গার অসম্মান করা হয়েছে৷ ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী, ২৯৫, ২৯৮, ১৫৩, ১৫৩(B), ১২০ ধারায় অভিযোগটি দায়ের হয়েছে৷ ছবিটির টিজার মুক্তি পাওয়ার আগেই কন্ট্রোভার্সির মধ্যে পড়েছিলেন সলমন খান৷ বিশ্ব হিন্দু পরিষদ সলমনকে হুমকি দিয়েছিলেন ছবির নামকরণের জন্য৷ তাঁদের মতে নবরাত্রি উৎসবকে অপমান করা হয়েছে৷

ছবির নাম ‘লাভরাত্রি’ দেওয়া উচিত হয়নি৷ এমনকি তাঁরা এও ঘোষণা করেছিলেন, যে ব্যক্তি সলমনকে প্রকাশ্যে চড় মারতে পারবে তাকে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে৷ আর যে সিনেমার সেটকে নষ্ট করবে তাকে ২ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে৷

ছবির টাইটেল একবার বদলানোর পর দ্বিতীয়বার বদলানো হবে কিনা সে বিষয় ছবির নির্মাতারা এখনও কিছু জানাননি৷ সলমন, আয়ুশ এবং ওয়ারিনা কেউই এ বিষয় কোনও মন্তব্য করেননি৷ আগামী ৫ অক্টোবর মুক্তি পাওয়ার কথা ছবিটি৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here