নির্বাচনকালীন সরকারে বেশি মন্ত্রী রাখা ও জোটে ১শ’ আসন দাবি জাতীয় পার্টির

0
155

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নির্বাচনকালীন সরকারে জাতীয় পার্টির মন্ত্রী সংখ্যা বেশি রাখা এবং নির্বাচনী জোটে জাপার জন্য ১শ’ আসন চেয়েছেন জাতীয় পার্টির নেতারা। তবে এ দু’টি বিষয়েই কোনো চূড়ান্ত সায় দেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার সন্ধ্যা ছয়টার পর সংসদ অধিবেশন শেষে সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদসহ দলটির পাঁচ নেতা বৈঠক করেন। প্রায় দেড় ঘণ্টা এ বৈঠকে এইচএম এরশাদের সঙ্গে ছিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, জাপা মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ ও জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।
জাপা সূত্র জানায়, বৈঠকে সম্ভাব্য নির্বাচনকালীন সরকার নিয়েও কথা ওঠে। এসময় তার দলের কয়েক নেতার নাম উল্লেখ করে তাদের ওই মন্ত্রিসভায় রাখার অনুরোধ জানান। তবে প্রধানমন্ত্রী এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করেননি। এছাড়া আগামী নির্বাচনে আসন নিয়েও কথা তোলেন জাপা নেতারা। প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে পরিস্কার করে কিছু বলেন নি। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন যথাসময়েই হবে।

বৈঠকে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, আগামী জাতীয় নির্বাচন, নির্বাচনে জাপার অবস্থান ও জোট-মহাজোট নিয়েও দীর্ঘ আলোচনা হয়। কথা প্রসঙ্গে বিকল্পধারা সভাপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জোট গঠন এবং এতে বিএনপি জোটের সম্ভাব্য যুক্ত হওয়ার বিষয়ও আলোচনায় আসে।

আগামী ৬ অক্টোবর ঢাকায় জাপার মহাসমাবেশ নিয়েও কথা বলেন এইচএম এরশাদ। এসময় প্রধানমন্ত্রীকে এরশাদ বলেন, ‘আমি তো বলেছি ওই মহাসমাবেশ থেকে আমাদের নির্বাচনী কৌশল ঘোষণা করব’। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সেটা তো আপনার দলীয় ব্যাপার।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here