পদত্যাগের কারণ জানালেন নিকি হ্যালি

0
147

জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের দূত নিকি হ্যালি পদত্যাগ করেছেন এবং এই বছরের শেষে তিনি তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেবেন।

মঙ্গলবার ওভাল অফিসে এই ঘোষণা দেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এসময় পাশাপাশি বসেছিলেন ট্রাম্প ও হ্যালি। প্রথমে ট্রাম্প এবং পরে হ্যালি এই পদত্যাগের বিষয়ে কথা বলেন বলে জানায় সিএনএন।

হ্যালি বলেন, জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আমার সারাজীবনে সবচেয়ে সম্মানজনক একটি বিষয়। এটাই ছিল আমার জন্য পদত্যাগ করার সবচেয়ে উপযুক্ত সময়। এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত কোনও কারণ নেই।

পদত্যাগের কারণ তিনি যুক্তসহ ব্যাখ্যা করে বলেন, সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কখন তার সরে দাঁড়ানোর সময় হয়েছে তা বুঝতে পারা। আমি নিশ্চিত করতে চাই যে এই প্রশাসন ও প্রেসিডেন্টের আরও অধিক যোগ্য ব্যক্তি আছে, যারা এই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

ট্রাম্পের পররাষ্ট্র নীতির প্রশংসা করে হ্যালি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এখন সম্মানিত। আমরা যা করি, তা অনেক দেশ পছন্দ করে না কিন্তু আমরা যা করি, তার প্রতি সম্মান দেখায় তারা।

ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার ও ইভানকা ট্রাম্পসহ তার দলের সদস্যদেরও প্রশংসা করেন দক্ষিণ ক্যারোলাইনার সাবেক গভর্নর। তিনি বলেন, জ্যারেড যেন লুকানো প্রতিভা যা কেউ বুঝে উঠতে পারে না। সারাবিশ্বের মধ্যে আমাদের দেশ শ্রেষ্ঠতর কারণ তারা আছে প্রশাসনে।

হ্যালি নিজেই আগামী ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কথা উল্লেখ করে বলেন, আমি জানি এই বিষয়টা উঠবেই। না, আমি ২০২০ এর দিকে ছুটছি না।

এর আগে হ্যালির পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে ট্রাম্প তাকে ‘ফ্যান্টাস্টিক পারসন’ উল্লেখ করে বলেন, আমরা একসঙ্গে অনেক সমস্যা সমাধান করেছি। এখনও অনেক সমস্যা সমাধানের পথে আছি আমরা। তিনি আমাকে সম্ভবত ছয়মাস আগে পদত্যাগের বিষয়টি জানান।

দুই থেকে তিন দিনের মধ্যেই জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কূটনৈতিক পদটির জন্য একজন উত্তরসূরির নাম প্রস্তাবের পরিকল্পনা আছে বলেও উল্লেখ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here