পর্যটনে বিশ্বের জনপ্রিয় ২০ শহর, শীর্ষে হংকং

0
205

পর্যটকরা ঘুরে বেড়ানোর জন্য সাধারণত বড় বড় শহর বেছে নেন। ফলে ২০১৮ সালে এসব শহরগুলোতে ১৪০ কোটি ভ্রমণের নজির স্থাপন হয়েছে। পর্যটক সমাগমের হিসাবে বিশ্বের শীর্ষ ১০০টি শহুরে গন্তব্যের তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনাল।

বিদেশ থেকে আসা পর্যটকের সংখ্যার নিরিখে প্রতি বছর সবচেয়ে জনপ্রিয় শহরের তালিকা তৈরি করে ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনাল। এবার ৬০০টি শহরে গবেষণা চালিয়েছে এই ব্রিটিশ সংস্থা।

চীনের শেনজেনর‌্যাংকিংয়ে এশিয়ার আধিপত্য চোখের পড়ার মতো। ১০০টি জনপ্রিয় শহরের ৪১টিই এই মহাদেশে। গতবারের মতো শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে হংকং। ২০১৭ সালের চেয়ে দেশটিতে পর্যটকের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ২০ লাখ। চীন থেকেই বেশি মানুষ যায় সেখানে।

সিঙ্গাপুরতালিকার দুই নম্বরেও আছে এশিয়ার দেশ ব্যাংকক। গত বছরও দুইয়ে ছিল থাইল্যান্ডের রাজধানী। এছাড়া শীর্ষ দশে রয়েছে সিঙ্গাপুর, ম্যাকাউ, কুয়ালালামপুর, শেনজেন।

থাইল্যান্ডের ফুকেটশীর্ষ ২০ জনপ্রিয় শহরের মধ্যে আছে ভারতের দিল্লি (১৩) ও মুম্বাই (১৯)। এর মধ্যে ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনাল আশা করছে, আগামী বছর শীর্ষ দশে ঢুকে যাবে মুম্বাই। সেখানে ২০১৯ সালে নেভি মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কার্যক্রম চালু হবে। এছাড়া পর্তুগালের পোর্তো, জাপানের ওসাকা ও ইসরায়েলের জেরুজালেমকে পর্যটকদের জন্য জুতসই হিসেবে মন্তব্য এই সংস্থার।

ইংল্যান্ডের লন্ডনতিন নম্বর স্থানও অপরিবর্তিত, লন্ডন দখল করে আছে এই জায়গা। ইউরোপের শহরগুলোর মধ্যে প্যারিস ষষ্ঠ ও রোম ১৫তম স্থান পেয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই
সাতে আছে দুবাই। যদিও ইউরোমনিটর ইন্টারন্যাশনালের প্রতিবেদনে জানা গেছে, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকায় এ বছর পর্যটকরা কম গেছেন। এর অন্যতম কারণ সন্ত্রাসী হামলা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটিযুক্তরাষ্ট্রে পর্যটনে ২০১৮ হতাশার বছর। শীর্ষ ২০ জনপ্রিয় শহরের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে কেবল নিউ ইয়র্ক সিটি। আমেরিকার অন্য শহরগুলোর মধ্যে মিয়ামি ২২, লস অ্যাঞ্জেলেস ২৭ ও লাস ভেগাস আছে ২৮ নম্বরে।

ভ্রমণপিপাসুর সংখ্যা বেড়ে যায় বৈশ্বিক বিমান চলাচল ক্রমে বাড়ছে। এ বছরও ব্যতিক্রম হয়নি।

ফ্রান্সের প্যারিসপর্যটনে বিশ্বের শীর্ষ ২০ শহর
১. হংকং: ২ কোটি ৭৮ লাখ ৮০ হাজার ৩০০ (২০১৭)/২ কোটি ৯৮ লাখ ২৭ হাজার ২০০ (২০১৮)
২. ব্যাংকক, থাইল্যান্ড: ২ কোটি ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ৯০০ (২০১৭)/২ কোটি ৩৬ লাখ ৮৮ হাজার ৮০০ (২০১৮)
৩. লন্ডন, যুক্তরাজ্য: ১ কোটি ৯৮ লাখ ২৭ হাজার ৮০০ (২০১৭)/২ কোটি ৭ লাখ ১৫ হাজার ৯০০ (২০১৮)
৪. সিঙ্গাপুর: ১ কোটি ৭৬ লাখ ১৮ হাজার ৮০০ (২০১৭)/১ কোটি ৮৫ লাখ ৫১ হাজার ২০০ (২০১৮)
৫. ম্যাকাও, চীন: ১ কোটি ৭৩ লাখ ৩৭ হাজার ২০০ (২০১৭)/১ কোটি ৮৯ লাখ ৩১ হাজার ৪০০ (২০১৮)
৬. প্যারিস, ফ্রান্স: ১ কোটি ৫৮ লাখ ৩৪ হাজার ২০০ (২০১৭)/১ কোটি ৬৮ লাখ ৬৩ হাজার ৫০০ (২০১৮)
৭. দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত: ১ কোটি ৫৭ লাখ ৯০ হাজার (২০১৭)/১ কোটি ৬৬ লাখ ৫৮ হাজার ৫০০ (২০১৮)
৮. নিউ ইয়র্ক সিটি, যুক্তরাষ্ট্র: ১ কোটি ৩১ লাখ (২০১৭)/১ কোটি ৩৫ লাখ (২০১৮)
৯. কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া: ১ কোটি ২৮ লাখ ৪৩ হাজার ৫০০ (২০১৭)/১ কোটি ৩৪ লাখ ৩৪ হাজার (২০১৮)
১০. শেনজেন, চীন: ১ কোটি ২০ লাখ ৭৫ হাজার ১০০ (২০১৭)/১ কোটি ২৪ লাখ ৩৭ হাজার ৩০০ (২০১৮)
১১. ফুকেট, থাইল্যান্ড: ১ কোটি ১৬ লাখ ১৩ হাজার ১০০ (২০১৭)/১ কোটি ১৯ লাখ ৪৫ হাজার ৫০০ (২০১৮)
১২. ইস্তাম্বুল, তুরস্ক: ১ কোটি ৭ লাখ ৩০ হাজার ৩০০ (২০১৭)/১ কোটি ২১ লাখ ২১ হাজার ১০০ (২০১৮)
১৩. দিল্লি, ভারত: ১ কোটি ১ লাখ ৫৭ হাজার (২০১৭)/১ কোটি ২৫ লাখ ৫ হাজার ৩০০ (২০১৮)
১৪. টোকিও, জাপান: ৯৫ লাখ ৪৯ হাজার ৪০০ (২০১৭)/৯৮ লাখ ৯৬ হাজার ৩০০ (২০১৮)
১৫. রোম, ইতালি: ৯৫ লাখ ৩১ হাজার ৬০০ (২০১৭)/৯৭ লাখ ৩ হাজার ২০০ (২০১৮)
১৬. আনতালিয়া, তুরস্ক: ৯৪ লাখ ৮২ হাজার ৪০০ (২০১৭)/১ কোটি ৭ লাখ ২৯ হাজার ৩০০ (২০১৮)
১৭. তাইপেই, তাইওয়ান: ৯২ লাখ ৭৩ হাজার ৩০০ (২০১৭)/৯৭ লাখ ৮৩ হাজার ৩০০ (২০১৮)
১৮. গুয়াংজু, চীন: ৯০ লাখ ৪ হাজার ৮০০ (২০১৭)/৯৩ লাখ ৯২ হাজার (২০১৮)
১৯. মুম্বাই, ভারত: ৮৯ লাখ ৮৪ হাজার ৯০০ (২০১৭)/১ কোটি ৬ লাখ ৭০ হাজার ১০০ (২০১৮)
২০. প্রাগ, চেক রিপাবলিক: ৮৮ লাখ ৬ হাজার ৭০০ (২০১৭)/৯০ লাখ ৩৮ হাজার ৯০০ (২০১৮)

তুরস্কের ইস্তাম্বুলসূত্র: সিএনএন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here