পেটে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে, পরীক্ষা করে ডাক্তার জানান শিশুটি ধর্ষণের শিকার!

0
61

 পেটে ব্যথার কথা মা-বাবাকে জানায় শিশুটি। পরে চার বছরের ওই শিশুকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, শিশুটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে। পরে এ ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার ফতুল্লার ভুইগড় পশ্চিমপাড়া এলাকায় ঘটেছে এমন ঘটনা।

ভুক্তভোগী শিশুটির পরিবার জানায়, সোমবার (১৫ জুন) থেকে পেটে ব্যথার কথা শিশুটি তার মা-বাবাকে জানায়। সারারাত ব্যথা থাকায় মঙ্গলবার সকালে তাকে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, শিশুটি ধর্ষণেরর শিকার হয়েছে।

পরে শিশুটির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সিরাজুল ইসলামকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে এলাকাবাসী।

পুলিশ জানায়, প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদে সিরাজুল ইসলাম ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে, সোমবার দুপুরে শিশুটির মা-বাবা কাজে থাকায় তাকে নিজ ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) শাহাদাত হোসেন জানান, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় সিরাজুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here