ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাক শিরাক মারা গেছেন

0
150

১৯৯৫ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ছিলেন জ্যাক শিরাক। ৮৬ বছর বয়সে তিনি মারা গেলেন। ইরাক যুদ্ধে অংশগ্রহণে অস্বীকার করে ২০০৩ সালে তিনি বলেছিলেন, ‘যুদ্ধ সবসময় শেষ গন্তব্য’। দু’দফা প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের পর শেষমেষ তাকে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হওয়ায় ফ্রান্স তার ১২ বছরের নেতৃত্ব থেকে বঞ্চিত হয়। দুবার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন শিরাক। ১৯৭৭ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত তিনি ছিলেন প্যারিসের মেয়র। এমনকি দুই বছরের কারাদ- ভোগ করতে হয় তাকে। মিরর

২০১৬ সালে শিরাক তার মেয়ের মৃত্যুর পর কার্যত খুব একটা প্রকাশ্যে আসতেন না। যদিও দেখা যেত তাকে খুব বিমর্ষ লাগত। ইরাক যুদ্ধে অংশগ্রহণে বিরত থাকাই তাকে আন্তর্জাতিক বিশে^ বিরল নেতা হিসেবে পরিচয় এনে দেয়। জ্যাক শিরাক ইরাক যুদ্ধে অংশগ্রহণে তার দেশের অসম্মতির কথা জানিয়ে বলেছিলেন, যুদ্ধ সবসময় ব্যর্থতা প্রমান করে। যুদ্ধ সবসময় খারাপ সমাধান এনে দেয় কারণ যুদ্ধ কেবল মৃত্যু এবং দুঃখই বহন করে আনে।

১৯৬২ সালে জ্যাক শিরাক রাজনীতিতে পা রাখেন। তার আগে তিনি দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী জর্জ পোম্পাইডোর চিফ অব স্টাফ ছিলেন। প্রেসিডেন্ট পোম্পাইডো বলেছিলেন তিনি যা করেছেন তার আড়ালে ছিল জ্যাক শিরাকের মেধা ও ধীশক্তি। এজন্যে পোম্পাইডো শিরাককে ‘বুলডোজার’ বলে ডাকতেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here