বাংলাদেশ কোচও মানছেন, ম্যাচটি কঠিন হবে

0
254

বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তান—চার দলের গ্রুপে রাজত্বটা স্বাগতিকদেরই। কিন্তু টানা দুই ম্যাচে জিতেও বাংলাদেশের দলের সেমিফাইনাল যখন নিশ্চিত হয় না, তখন বুঝতেই হবে উত্তেজনার এখনো বাকি আছে। তাই আজ নেপালের বিপক্ষে ম্যাচটাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে জামাল ভুঁইয়াদের জন্য। অথচ জিতলে তো কথাই নেই, ড্র হলেও সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে বাংলাদেশের।

ড্র করতে পারলেই নয় বছর পর সাফের সেমিফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ। সামনে থাকা তুলনামূলক এই সহজ সমীকরণের পরও বাংলাদেশ কোচ জেমি ডের কপালে চিন্তার ভাঁজ। কারণ, প্রতিপক্ষ নেপালের পারফরম্যান্স। পাকিস্তানের বিপক্ষে নেপালের ২-১ গোলে হারে মনে হতে পারে, নেপাল আর এমন কী দল! কিন্তু মাঠে বসে ম্যাচটি যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা জানেন পাকিস্তানকে কতটা কোণঠাসা করে রাখার পরও দুর্ভাগ্যের কাছে হেরেছিল নেপাল। আর শেষ ম্যাচে তো তারা ভুটানকে উড়িয়ে দিয়েছে ৪-০ গোলেই, যে ভুটানের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় ২-০ গোলে। ফলে বাংলাদেশের জন্য নেপাল শক্ত এক প্রতিপক্ষই।

নেপালকে শক্ত প্রতিপক্ষ মানছেন বাংলাদেশ কোচ জেমিও, ‘জানি ম্যাচটা কঠিন হবে। নেপাল অনেক শক্তিশালী, জানি ওরা আমাদের সমস্যায় ফেলবে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ভাগ্য ওদের পাশে ছিল না, ভুটানকে চার গোল দিয়েছে। শেষ চারে যেতে আমাদের তাই খুব ভালো খেলতে হবে। তা না করতে পারলে আমরা বাদ পড়ে যাব, যেটা আমাদের জন্য বড় হতাশারই হবে।’

ন্যূনতম ড্র করতে পারলেই নিশ্চিত গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ। হারলে পরে যাবে অনেক যদি-কিন্তুর ওপরে। কিন্তু অত কিছু ভাবছেন না বাংলাদেশ কোচ, ‘আমাদের হারা যাবে না (হাসি)। আসলে আমাদের নিজেদের খেলা খেলতে হবে। অন্যরা কী করছে, পাকিস্তান কী করছে, সেসব নিয়ে ভাবলে চলবে না। আগের দুই ম্যাচে যা করেছি, তা করতে হবে।’

আগের দু ম্যাচে কী করেছিল বাংলাদেশ, তা সবারই জানা। তাহলে আজও কি আরও একটি জয় বাংলাদেশের?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here