বাংলাদেশ-ভারত টেস্টের সময় হার্শা ভোগলেকে অপমান করে ‘অনুতপ্ত’ সঞ্জয়

0
20

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল যখন ভারত সফরের ইডেন টেস্ট খেলছিলো তখন ঘটেছিলো ঘটনাটি। দিবা-রাত্রির ওই টেস্টে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা যারপরনাই ব্যর্থ ছিলেন। এমনকি বলই দেখতে পারছিলেন না তারা। যার ফলে বলের আঘাতে আহত হন তিন ক্রিকেটার। ওই টেস্টে গোলাপি বলের ইস্যুতে ম্যাচ চলাকালেই হার্শা ভোগলেকে অপমান করেছিলেন সঞ্জয় মাঞ্জারেকার। সেটা নিয়ে অনুতপ্ত হয়েছেন গতকাল। খবর : ক্রিকটাইম।

বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা বেশি বিপাকে পড়েছিলেন গোধূলিবেলায়। আলোর রঙ বদলের কারণে বলের গতিবিধি বুঝতে সমস্যা হচ্ছিল। এ নিয়েই ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে সহকর্মী সঞ্জয় মাঞ্জরেকারের সাথে আলোচনা করছিলেন সম্প্রচার চ্যানেলের অন এয়ারে।

এমন সময় ভোগলে বলেন- গোধূলিতে গোলাপি বল দেখতে কোনো সমস্যা হচ্ছে কি না, ক্রিকেটারদের কাছে তা জানতে চাওয়া উচিত। তবে ভোগলেকে সরাসরি সম্প্রচারিত অনুষ্ঠান চলাকালেই অপমান করে বসেন সঞ্জয়।

বল দেখতে সমস্যা হচ্ছে না- এমন দাবি করে সঞ্জয় ভোগলের খেলোয়াড়ি জীবন নিয়ে খোঁচা দেন। সঞ্জয়ের ভাষ্য ছিল এমন ‘আপনাদের উচিত বল দেখা যাচ্ছে কি না তা হার্শাকে প্রশ্ন করা। আমরা যারা অল্প-স্বল্প ক্রিকেট খেলেছি, তাদের বলার দরকার নেই। এটা তো পরিষ্কার যে বল দেখতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না।’

সঞ্জয়ের এমন মন্তব্যে ক্ষোভ ঝেড়েছিলেন অনেকেই। এতদিন সঞ্জয় নিশ্চুপ ছিলেন। তবে সম্প্রতি মুখ খুলেছেন। সঞ্জয় বলেন, ‘আমার এমন মন্তব্য করা উচিত হয়নি। আমি অপেশাদার আচরণ করেছি। যারা আমার বই পড়েছে, তারা জানে ধারাভাষ্যকারদের নিয়ে আমার দৃষ্টিভঙ্গি কেমন। প্রডাকশন কোম্পানিকে আমি আহ্বান জানিয়েছি, তারা যেন ভালো ধারাভাষ্যকারদের সুযোগ দেয়। তার জন্য ক্রিকেট খেলতে হবে এমন কথা কিন্তু বলিনি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here