বাবরি মসজিদ ভাঙার মামলার সব আসামি বেকসুর খালাস

0
28

অযোধ্যার শতাব্দীপ্রাচীন বাবরি মসজিদ ধ্বংসের প্রায় ২৮ বছর পর বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) লখনউয়ের বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচারক সুরেন্দ্রকুমার যাদব রায় ঘোষণা করেন। আনন্দবাজার।

ভারতের আদালত বলছে, ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত ছিল না। তথ্যপ্রমাণও যথেষ্ট নয় বলে জানায় আদালত। ফলে সসম্মানে মুক্তি দেয়া হল ৩২জন অভিযুক্তকেই। রায় ঘোষণার সময় অভিযুক্তদের সশরীরে আদালতে হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কোভিডে আক্রান্ত হয়ে এই মুহূর্তে হৃষীকেশের হাসপাতালে ভর্তি উমা ভারতী।

জানা যায়, ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর উন্মত্ত রামভক্তদের হাতে ধ্বংস হয় মসজিদটি। বহুল আলোচিত এই মামলায় মোট ৪৯ জনকে অভিযুক্ত করা হয়। যাদের মধ্যে ১৭ জন এরই মধ্যে মারা গেছেন। বেঁচে আছে ৩২ জন। বিজেপির অনেক সিনিয়র নেতা ওই মামলায় অভিযুক্ত।

বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ওই মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন বিজেপির সিনিয়র নেতা এলকে আদভানি, মুরালি মনোহর যোশী, উত্তর প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিং, বিজেপির ফায়ার ব্র্যান্ড নেত্রী উমা ভারতী, বিনয় কাটিয়ার।

মামলাটিতে আসন্ন রায় নিয়ে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’বোর্ডের সদস্য কামাল ফারুকী বলেন, ২৭ বছর আগে দিনের আলোয় অযোধ্যাতে ওই ঘটনা ঘটেছিল। সবাই তা জানে। এক্ষেত্রে আদালতের রায়ে এমন শাস্তি দেওয়া উচিত যাতে দেশে পুনরায় কোনো ধর্মের ধর্মীয় স্থানের বিরুদ্ধাচরণে কারো কোনো সাহস না হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here