ভারত সরকারের পুরস্কার পাচ্ছে ছায়ানট

0
170

ভারত সরকার প্রবর্তিত ‘দ্য টেগোর অ্যাওয়ার্ড ফর কালচারাল হারমনি ২০১৫’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে বাংলাদেশের ছায়ানট। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৫ সালের পুরস্কারের জন্য ছায়ানটকে মনোনীত করেছেন। সাংস্কৃতিক সম্প্রীতি রক্ষায় ছায়ানটের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫০তম জন্মদিন উপলক্ষে এই পুরস্কারের প্রবর্তন করে ভারত সরকার। ২০১২ সালে প্রথম এই পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রথম পুরস্কারটি দেওয়া হয় প-িত রবি শংকরকে।
২০১৩ সালে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন জুবিন মেহতা। আর ২০১৫ সালের ‘দ্য টেগোর অ্যাওয়ার্ড ফর কালচারাল হারমনি’ পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়েছে ছায়ানট।

ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশনের এক বিবৃতিতে বৃহস্পতিবার এই পুরস্কার প্রদানের বিষয়টি জানানো হয়। এর আগে দুইজন ব্যক্তি এই পুরস্কার পেলেও ‘ছায়ানট’ প্রথম প্রতিষ্ঠান যারা এ সম্মাননা পাচ্ছে।
পুরস্কারের মূল্যমান এক কোটি রুপি। এর সঙ্গে দেওয়া হবে একটি মানপত্র, একটি ফলক ও ঐতিহ্যবাহী একটি হস্তশিল্প পণ্য। এই পুরস্কার জাতি, বর্ণ, ভাষা নির্বিশেষে সব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের জন্য উন্মুক্ত।
১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ছায়ানট। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাহিত্যকর্ম এবং বাংলা সংস্কৃতিকে বাংলাদেশের পাশাপাশি বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

ভারতীয় হাইকমিশন জানিয়েছে, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার নিবিড় বোঝাপড়া এবং সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ক্ষেত্রে একটি সেতু তৈরি করেছে ছায়ানট। জুরি বোর্ডের সিদ্ধান্ত সাংস্কৃতিক সম্প্রীতিকে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার ক্ষেত্রে ছায়ানটের ভূমিকাকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here