মালয়েশিয়ায় আটক ২৯৬ বাংলাদেশিকে ফেরাতে তৎপর দূতাবাস

0
203

অনুপ্রবেশের দায়ে মালয়শিয়ার বিভিন্ন কারাগার ও ক্যাম্পে আটক থাকা বাংলাদেশীদের সুনিদ্দিষ্ট কোনো হিসাব নেই ঢাকার কাছে। আটকৃতদের বেশিরভাগই অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ কিংবা অবৈধভাবে থাকার কারণে গ্রেফতার হয়েছেন।

দেশটির সিমুনিয়া, লেঙ্গিং, জুরুত, তানাহ মেরায়, মাচাম্বু, পিকে নানাস, আজিল, কেএলআইএ সেপাং ডিপো, ব্লান্তিক, বুকিত জলিল ও পুত্রাজায়া ক্যাম্পে আটক রয়েছেন ২৯৬ জন। তাদেরকে ফেরাতে তৎপরতা শুরু করেছেন দূতাবাস কর্মকর্তারা।

দূতাবাস জানায়, আটক ২৯৬ জনের মধ্যে ৪ ডিসেম্বর ৪০ জন ও ৬ ডিসেম্বর ১৮ জন ফের এসেছে। এ ছাড়া ১৩ ডিসেম্বর ৩১ জন বন্দী দেশে ফেরত আসার অপেক্ষায় রয়েছেন। পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে নিজ খরচে ফিরছেন বন্দিরা। যারা পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ ও বিমান ভাড়া দিতে পারেনি তাদের দেশে ফেরার প্রক্রিয়া দির্ঘ্য হচ্ছে। শুধু যাদের কেউ নেই অথবা টিকিটের ব্যবস্থা করতে একদমই অপারগ তাদের জনহিতৈশী কাজে নিয়োজিতদের সহযোগিতায় দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশিদের ফেরাতে গত সপ্তাহে হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম সিমুনিয়া ইমিগ্রেশন ক্যাম্প পরিদর্শণে যান। ক্যাম্প কমান্ডার ও ডেপুটি কমান্ডারের সঙ্গে বৈঠকে তিনি বাংলাদেশি বন্দিদের কোন অসুবিধা না হয় সেদিকে খেয়াল রাখার বিষয়টি জানিয়ে বন্দিদের দ্রুত বাংলাদেশে পাঠানোর পরামর্শ দেন। এ ছাড়া বন্দিদের সঙ্গেও কথা বলেন শহীদুল ইসলাম এবং তাদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন।

হাইকমিশন থেকে অস্থায়ী ট্রাভেল পাশ ইস্যু করে তাদেরকে দেশে পাঠানো হচ্ছে জানিয়ে কাউন্সিলর (শ্রম) মো. সায়েদুৃল ইসলাম বলেন, অবৈধ অভিবাসীদের ধরতে ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য বিভাগের প্রতিদিনের মেগা-থ্রি অভিযানে বাংলাদেশিসহ অবৈধ অভিবাসীদের আটক করে দেশটি।

পাসপোর্ট, ভিসা না থাকা, সমুদ্র-স্থলপথে অনুপ্রবেশ করার জন্যই মুলত আটক রয়েছেন বাংলাদেশিরা। বন্দি শিবিরে যারা আটক রয়েছেন তাদের দ্রুত দেশে পাঠানোর সবরকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here