মিয়ানমারে উগ্র বৌদ্ধ গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা

0
523

মিয়ানমারে উগ্র বৌদ্ধ গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা

আন্তঃধর্মীয় কর্মসূচির সঙ্গে জড়িত থাকা মান্দালয়ভিত্তিক বৌদ্ধ ধর্ম নেতা অশ্বিন আরিয়া উনথা বিভুসনা বলেছেন, মা বা থা  নামে পরিচিত ওই গোষ্ঠীটির মতাদর্শের সঙ্গে বৌদ্ধ মআদর্শের মিল নেই। ইউসিএনিউজকে তিনি বলেন, ‘গোষ্ঠীটির নির্দিষ্ট কোনও লক্ষ্য নেই। তারা ঘৃণাবাদী বক্তব্য ছড়ায় যা দেশে মুসলিম বিদ্বেষী মনোভাবে উসকানি দেয়। গণতান্ত্রিক পথে উত্তরণের সময়ে এদের মতাদর্শ আর কার্যক্রম সরকারের এগিয়ে যাওয়ার পথে বাধা। সেকারণে সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হতো।’ গোষ্ঠীটির কার্যক্রম মিয়ানমারের সব বৌদ্ধ ধর্মগুরুর কাজকেই বাধাগ্রস্ত করছিল বলেও মন্তব্য করেন তিনি।২১ জুলাই এক বিবৃতিতে বৌদ্ধ ধম্ম পরহিত ফাউন্ডেশন দেশজুড়ে তাদের সব শাখার কাছে তাদের কার্যক্রম বন্ধ ও সাইনবোর্ড সরিয়ে ফেলার বিষয়ে বিষয়ে পরামর্শ চেয়েছে। ‘বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের মধ্যে অনৈক্য থাকলে এবং দেশে সহিংসতা হলে তা রাষ্ট্রীয় সংঘ ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব’ বলে সতর্ক করে দেওয়া হয় ওই বিবৃতিতে।

ইয়াঙ্গুনের উলামা ইসলামিক অর্গানাইজেশনের মহাসচিব কিয়াও নাইন এই নিষেধাজ্ঞাকে স্বাগত জানিয়েছেন তবে একই সঙ্গে এই আদেশ কার্যকর করারও আহ্বান জানান তিনি। পেশায় আইনজীবী এই মহাসচিব বলেন, এসব অবাধ্য বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপের জন্য নাগরিক সমাজের কার্যকর অবস্থান দরকার।

২০১৭ সালের মে মাসে নিষিদ্ধ করার পর গোষ্ঠীটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি তাদেতর নাম ও লোগোতে পরিবর্তন আনে। তবে উদ্দেশ্য আর কার্যক্রম অপরিবর্তিত রাখা হয়। কারেন রাজ্য আর মান্দালয় বিভাগে তাদের পুরনো নাম মা বা থা ব্যবহার অব্যাহত রাখে তারা।

পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইনে সাম্প্রদায়িক সংঘাতে মুসলিম বিদ্বেষী প্রচারণার উসকানি রয়েছে বলে অনেকেই মনে করেন।২০১২ সালে সেখানে সহিংসতায় দুইশোরও বেশি মানুষ নিহত হয় আর হাজার হাজার মানুষ বাড়ি ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়। এদের বেশিরভাগই রোহিঙ্গা নাগরিক।

মা বা থা গ্রুপটি ২০১৩ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়। দেশটির অনেকেই মনে করেন এই গ্রুপের প্রচারণার কারনেই ২০১৫ সালে নির্বাচনের আগে সেনা-সমর্থিত সরকার কথিত বর্ণ ও ধর্ম আইন পাশ করে। সমালোচকরা বলে থাকেন, এই আইনের লক্ষ্যবস্তু হলো ধর্মীয় সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়। যাদের অনেকেই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভূক্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here