‘#মি টু’ আছড়ে পড়লো বাংলাদেশেও : মুখ খুললেন প্রিয়তি ( ভিডিও)

0
455

মিটু ঝড় এবার বাংলাদেশে। মুখ খুললেন প্রাক্তন মিস আয়ারল্যান্ড মাকসুদা আখতার প্রিয়তি। অভিযোগ করলেন, যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন তিনি। আনন্দবাজার।

এই মুহূর্তে আয়ারল্যান্ডে রয়েছেন প্রিয়তি। সেখান থেকেই ফেসবুক পেজে নিজের অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন তিনি। তাঁর অভিযোগের তীর রফিকুল ইসলাম রফিক নামে এক ব্যবসায়ীর দিকে। ওই ব্যক্তি একটি নামী ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান। একইসঙ্গে তিনি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানও।

ওই ব্যক্তিকে প্রচ- ক্ষমতাশালী উল্লেখ করে প্রিয়তি লিখেছেন, ‘লোকটির নাম রফিকুল ইসলাম… এই পোস্টের পর হয়তো আমার নামে মানহানির মামলা হবে, না হয় বলবে অসৎ উদ্দেশ্য আছে আমার… ইত্যাদি ইত্যাদি।’’ বছর তিনেক আগে রফিকুলের কোম্পানির একটি পণ্যের বিজ্ঞাপনে কাজ করার পর নিজের পারিশ্রমিক আনতে গিয়েছিলেন প্রিয়তি।

সেই সময় রফিকুলের অফিসেই তাঁর যৌন নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ। ফেসবুক স্ট্যাটাসে প্রিয়তি লিখেছেন, ‘এই লোকটি তার অফিসে হঠাৎ করে টেবিল থেকে উঠে এসে আমার জামার ভিতর হাত ঢুকিয়ে… ২০১৫ সালের মে মাসে তাদের প্রোডাক্ট প্রমেক্স এর বিজ্ঞাপন এর পেমেন্ট আনতে গিয়ে (এই পেমেন্ট যদিও আমি পাইনি)। আমি চিৎকার করে কান্না করেছিলাম এই অপমান সহ্য করতে না পেরে, কিন্তু আমরা পুরোপুরি নিরূপায় ছিলাম তাদের ক্ষমতার কাছে। আমি কিন্তু তখন কারেন্ট মিস আয়ারল্যান্ড ছিলাম।’ প্রিয়তি আরও জানিয়েছেন, ‘আমি শুধু এতটুকু বলতে চাই, পুরো ঘটনাটি লজ্জায় লিখতে পারিনি, কারণ ঘটনা এর চেয়ে ভয়াবহ ছিল।

লোপা নামের একজনকে উদ্দেশ করে প্রিয়তি আরও লিখেন, সেই দিন ওই চেয়ারম্যান একাকি আলাপ করবেন বলে লোপাকে রুম থেকে বেরিয়ে যেতে নির্দেশ দেয়।
এরপর তিনি রুম থেকে বেরিয়ে এসে লোপার কাছে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ও এ ঘটনার শাস্তি দাবি করেন।

প্রিয়তির ওই স্ট্যাটাসের পর সামাজিক মাধ্যমে তোলপাড় শুরু হয়। পুরো বিষয়টি জানতে তাকে কমেন্ট করেন অনেকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here