যুক্তরাজ্য থেকে ফিরেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকায় বদরউদ্দিন কামরান

0
91

যুক্তরাজ্য ভ্রমণ শেষে দেশে ফিরে হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশনা ভঙ্গ করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান। এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। সূত্র: জাগো নিউজ

গত ১৫ মার্চ দেশে ফিরেই তিনি যোগ দিচ্ছেন বিভিন্ন অনুষ্ঠানে। এমনকি গত মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণকালে প্রধানমন্ত্রীসহ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন কামরান।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশফেরতদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার বাধ্যবাধকতার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। সিলেটে এ পর্যন্ত ৬২৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। যাদের প্রায় সকলেই প্রবাসী এবং তাদের স্বজন। একইসঙ্গে সকলকেই জনসমাগম এড়িয়ে চলার কথা বলা হয়েছে। বিদেশফেরত কয়কজন হোম কোয়ারেন্টাইনে না থাকায় মৌলভীবাজারে তিন প্রবাসী ও ছাতকে একজনকে জরিমানাও করেছে প্রশাসন। অথচ যুক্তরাজ্য থেকে ফেরার একদিন পরই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন কামরান।

গত মঙ্গলবার নিজের ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর পুষ্পস্তবক অর্পণের কিছু ছবি দিয়ে কামরান লেখেন, ‘আওয়ামী লীগ সভাপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা দলীয় নেতাকর্মীসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন।’ এসব ছবিতে পেছনের সারিতে কামরানকেও দেখা যায়।

এদিকে বুধবার বিকেলে সিলেট নগরের রিকাবীবাজারে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত মুজিববর্ষের আলোচনা অনুষ্ঠানেও বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন তিনি। এ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলসহ স্থানীয় নেতারা বক্তব্য দেন।

এতে বক্তৃতাকালে সম্প্রতি যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফেরার কথা জানিয়ে কামরান বলেন, বিদেশে থাকলেও আমি সবসময় আপনাদের খোঁজ-খবর নিয়েছি।

এ অনুষ্ঠানের পর অনেকেই কামরানের সঙ্গে ছবি তুলতে ও করমর্দন করতে দেখা যায়।

এ বিষয়ে বুধবার রাতে বদরউদ্দিন আহমদ কামরানের সঙ্গে মোবাইলফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

প্রসঙ্গত, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে যুক্তরাজ্য যান কামরান। ১৫ মার্চ দেশে ফিরলে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দলীয় অনুসারীরা তাকে সংবর্ধনা প্রদান করেন। সংবর্ধনার কিছু ছবি ফেসবুকেও শেয়ার করেন কামরান অনুসারীরা।

সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডল বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশ সফর করা যে কাউকেই স্বেচ্ছায় কিছুদিন হোম কোয়ারেন্টাইন থাকা প্রয়োজন। সকলের স্বার্থেই বিদেশফেরতদের এটি মেনে চলতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here