যুক্তরাষ্ট্রে ১০টি দেশের রফতানির পরিমাণ দেড় লাখ কোটি ডলারের বেশি

0
175

বিশ্বের ১০টি শীর্ষ শিল্পোন্নত দেশ যুক্তরাষ্ট্রে গত বছর ১ লাখ ৫৮ হাজার ২’শ কোটি ডলারের বিভিন্ন ধরনের পণ্য রফতানি করেছে। এধরনের পণ্য রফতানি যুক্তরাষ্ট্রের ওপর এ ১০টি দেশের অর্থনৈতিক নির্ভরতা আঁচ করা যায়। একই সঙ্গে এসব পণ্যের জন্যে যুক্তরাষ্ট্রকে এ ১০টি দেশের ওপর নির্ভর করতে হয়। তবে ট্রাম্প প্রশাসন চীন, ইউরোপের ওপর পণ্য আমদানিতে যে শুল্ক বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং পাল্টা দেশগুলো মার্কিন পণ্যের ওপর শুল্ক বসাচ্ছে তাতে এসব দেশের সঙ্গে বাণিজ্য অদূর ভবিষ্যতে কতটা হেরফের হয় তা দেখার বিষয়।
গত বছর চীন যুক্তরাষ্ট্রে ৫০২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করেছে। ট্রাম্প প্রশাসন চীন পণ্যের ওপর অতিরিক্ত ২’শ বিলিয়ন শুল্ক বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন বিধি আরোপ করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে রফতানিকৃত চীনা পণ্যের মধ্যে রয়েছে কম্পিউটার, প্রযুক্তি ডিভাইস, ট্যাব, স্মার্ট ফোন ও ইলেক্ট্রোনিক পণ্য। এসব পণ্য তৈরি কোম্পানিগুলোতে লাখ লাখ চীনা লোকবল কাজ করছে।

একই বছর যুক্তরাষ্ট্রে কানাডার রফতানির পরিমাণ ছিল ৩০২ বিলিয়ন ডলার। তেল, যানবাহন, যন্ত্রাংশ মিলে যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য আমদানির ১৩ ভাগ দখলে রেখেছে কানাডা। যুক্তরাষ্ট্রে মেক্সিকোর রফতানির পরিমাণ ২৯৭ বিলিয়ন ডলার। অটোমোবাইল, কম্পিউটার ও যন্ত্রাংশ রফতানি করে মেক্সিকো। সস্তা শ্রম ও প্রতিবেশি দেশ হিসেবে সীমান্ত লাগোয়া দেশ হিসেবে কিছুটা সুবিধা পায় দেশটি। মেক্সিকোর পর জাপান যুক্তরাষ্ট্রে ১৩৪ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করেছে গতবছর। প্রধানত জাপানি গাড়ি রফতানি হয় যুক্তরাষ্ট্রে। হুন্দাই ও মিৎসুবিসি ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ৪৭ বিলিয়ন ডলারের গাড়ি রফতানি করে।

ইউরোপ থেকে জার্মানি যুক্তরাষ্ট্রে গত বছর ৭৫ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করে। যুক্তরাষ্ট্রে প্রধানত যাত্রীবাহি যানবাহন, যন্ত্রাংশ ও ওষুধ রফতানি করে জার্মানি। দক্ষিণ কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রে গাড়ি, ইলেক্ট্রোনিক্সি, যন্ত্রাংশ ও তেল মিলিয়ে গত বছর ৭৪ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করেছে। একই সময় যুক্তরাষ্ট্রে ব্রিটেনের রফতানির পরিমান ছিল ৫৯ বিলিয়ন ডলার। যার মধ্যে যানবাহন প্রধানতম পণ্য। এরপর ফ্রান্স ৪৮ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করেছে যুক্তরাষ্ট্রে। যন্ত্রাংশ, বেভারেজ, মদ এমনকি বিমানও রফতানি করেছে ফ্রান্স।

ভারত গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে ৪৬ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রে মূল্যবান পাথর, ওষুধ ও তেল রফতানি করেছে ভারত। মার্কিন কোম্পানিগুলো ব্যাপকভাবে ভারত থেকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আউটসোর্সিং করছে। দশম দেশ হিসেবে ইতালির যুক্তরাষ্ট্রে গত বছর রফতানির পরিমান ছিল ৪৫ বিলিয়ন ডলার। যন্ত্রাংশ, বেভারেজ, মদ ও ওষুধ রয়েছে প্রধান রফতানি পণ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here