যুবলীগ নেতা হত্যায় ধর্মমন্ত্রীর ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

0
281

য়মনসিংহ মহানগর যুবলীগ সদস্য সাজ্জাদ আলম শেখ আজাদকে হত্যার ঘটনায় অবশেষে আদালতের নির্দেশে একমাস পর কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা হয়েছে।

মামলায় ধর্মমন্ত্রীর ছেলে ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিতুর রহমান শান্তকে প্রধান আসামি করে ২৫ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ময়মনসিংহের আকুয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছিল।

শুক্রবার (৩১ আগস্ট) রাতে দিলরুবা আক্তার দিলু বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। তিনি আজাদ শেখের স্ত্রী।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, মামলা নিতে গত বৃহস্পতিবার হাই কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে। শুক্রবার রাতে ধর্মমন্ত্রীর ছেলে মোহিতুর রহমান শান্তকে প্রধান আসামি করে মামলা নেওয়া হয়।

মামলার অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছে, ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মন্তু বাবু, মহানগর আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রাসেল পাঠান, যুবলীগকর্মী শেখ ফরিদ, ফরহাদ, মিলন, ফারুকসহ ২৫ জন।

জানা যায়, আজাদ শেখ আগে শান্তর গ্রুপে রাজনীতি করতেন। কিন্তু শান্ত তাকে টেন্ডারবাজি ও মাদক ব্যবসা করতে বললে আজাদ গ্রুপ বদল করে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল এবং পৌর মেয়র ইকরামূল হক টিটু গ্রুপে যোগ দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শান্ত তাকে হত্যা পরিকল্পনা করেন এবং তার নির্দেশেই অনুগত সন্ত্রাসীরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়।

আজাদের স্ত্রী দিলরুবা বলেন, নিজ দলের নেতার নির্দেশেই আমার স্বামীকে হত্যা করা হয়েছে। আজ মামলা করতে পেরে স্বস্তি পাচ্ছি। তবে নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় বোধ করেছেন দিলরুবা।

তবে ধর্মমন্ত্রীর ছেলে মোহিতুর রহমান শান্ত মিডিয়াকে বলেন, প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যকাণ্ড ঘটেছে। কারা কী করেছে পুলিশ সব জানে। এ মামলায় আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। সত্র : বাংলানিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here